BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মহারাষ্ট্রের গড়চিরোলিতে তুমুল গুলির লড়াই, খতম তিন মহিলা-সহ ৫ মাওবাদী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 19, 2020 3:55 pm|    Updated: October 19, 2020 3:55 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে তুমুল গুলির লড়াইয়ের জেরে খতম হল পাঁচ মাওবাদী। মৃতদের মধ্যে তিন জন মহিলাও রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড় সীমান্তে অবস্থিত উত্তর গড়চিরোলি (Gadchiroli)’র ধানোরা এলাকায়। এরপরই এই ঘটনাকে মাওবাদী দমন অভিযানে চলতি বছরের সবথেকে বড় সাফল্য বলে উল্লেখ করেছেন জেলা পুলিশের আধিকারিকরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি গোপন সূত্রে খবর আসে ছত্তিশগড়ের সীমান্তে অবস্থিত উত্তর গড়চিরোলির ধানোরা এলাকার কোসমি-কিসনেলি (Kosmi-Kisneli) জঙ্গলে বেশ কয়েকজন মাওবাদী (Maoist) ক্যাম্প তৈরি করেছে। সেই খবরের ভিত্তিতে রবিবার সকাল থেকে ওই জঙ্গলে যৌথ অভিযান চালাচ্ছিলেন গড়চিরোলির বিশেষ মাওবাদী দমন বাহিনীর সদস্যরা। বিকেল সাড়ে চারটের সময় তাঁরা যখন গভীর জঙ্গলে তল্লাশি চালাচ্ছেন সেসময় আড়াল থেকে আচমকা গুলি ছুঁড়তে আরম্ভ করে মাওবাদীরা। পালটা জবাব দেন নিরাপত্তারক্ষীরাও। কিছুক্ষণ লড়াই করার পরে রণে ভঙ্গ দিয়ে পালিয়ে যায় মাওবাদীরা। তখন ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে তিন মহিলা-সহ পাঁচ মাওবাদীর দেহ উদ্ধার করা হয়। পাশাপাশি সেখান থেকে প্রচুর অস্ত্র, কার্তুজ ও মাওবাদী মতবাদ সম্পর্কিত কাগজপত্র উদ্ধার হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’, ৩৭০ ফেরানোর দাবির পরই ফারুক আবদুল্লাকে জেরা ইডির]

এপ্রসঙ্গে গড়চিরোলির সহকারী পুলিশ সুপার বাহুসাহেব ঢোলে জানান, ‘গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই জঙ্গলে অভিযান চালানো হয়েছিল। উভয়পক্ষের লড়াইয়ে তিন মহিলা-সহ পাঁচ মাওবাদী খতম হলেও নিরাপত্তারক্ষীদের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। এই বছরে এখনও পর্যন্ত মাওবাদী দমন অভিযান করে এটাই সবচেয়ে বড় সাফল্য। এখনও ওই এলাকার জঙ্গলে বাকি মাওবাদীদের সন্ধানে চিরুনি তল্লাশি চালানো হচ্ছে।’

[আরও পড়ুন: থানায় আটকে রেখে ১০ দিন ধরে গণধর্ষণ! কাঠগড়ায় পাঁচ পুলিশকর্মী, লজ্জার ছবি মধ্যপ্রদেশে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement