১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মোদির স্বপ্নের বুলেট ট্রেন ছোটাতে জমিদাতাদের বিশেষ অফার রেলের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: September 2, 2018 4:42 pm|    Updated: September 2, 2018 5:27 pm

Get Stamp Duty Refund For Giving Land To Bullet Train Project: Sources

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জমি অধিগ্রহণ সমস্যায় থমকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের প্রকল্প৷ স্থানীয় কৃষকদের জোরালো আন্দোলনে গতি হারিয়েছে ভারতীয় রেলের বুলেট যাত্রা৷ প্রকল্প থমকে থাকার বাড়ছে ক্ষতির বহর৷ ফলে, আর্থিক ক্ষতিতে লাগাম টানতে জমিদাতাদের লোভনীয় ‘অফার’ রেলমন্ত্রকের৷ বুলেট ট্রেন প্রকল্পে জমি দিলে ফিরিয়ে দেওয়া হবে স্ট্যাম ডিউটির টাকা৷ বাজার দলের তুলনায় অতিরিক্ত মূল্য দেওয়া হবে বলে বলেও জানানো হয়েছে৷ এমনকী, নতুন করে কোনও জমি কেনার ক্ষেত্রে বুলেট প্রকল্পে জমিদাতাদের মিলবে বিশেষ ছাড়৷ নতুন জমি কেনার ক্ষেত্রেও বিপুল পরিমাণ স্ট্যাম ডিউটি দিতে হবে না জমিদাতাদের৷ একইসঙ্গে ২৫ শতাংশ বোনাস-সহ এককালীন ৫ লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

[আরও বিপাকে রবার্ট বঢরা, জমি কেলেঙ্কারিতে দায়ের নয়া অভিযোগ]

ন্যাশনাল হাই স্পিড রেল কর্পোরেশন লিমিটেডের বোর্ড মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, জমি অধিগ্রহণের গতি বাড়াতে স্থানীয় জমিদাতাদের সঙ্গে কথা বলেন এনএইচএসআরসিএল কর্তৃপক্ষ৷ দেশের উন্নয়নের জন্য জমিদাতাদের ভূমিকা কী তাও বোঝানোর চেষ্টা করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ গ্রামবাসীদের সচেতন করার পাশাপাশি দেওয়া হবে আকর্ষণীয় অফার৷ সরকারি সুবিধা দেওয়া ও বেশি দামে জমি কেনার প্রস্তাবও দেওয়া হবে বলে খবর৷ দেওয়া হবে বাড়তি ক্ষতিপূরণ৷

[সাংসারিক সমস্যায় জেরবার, সাত মাসের শিশুকন্যাকে খুন মহিলার]

দেশের মাটিতে বুলেট ট্রেন ছোটাতে গেলে প্রয়োজন ১৪৩৪ হেক্টর জমি৷ ৩৫৩ হেক্টর জমি নিতে হবে মহারাষ্ট্র ও গুজরাট থেকে৷ জানা গিয়েছে, গোটা প্রকল্পে ১৪৩৪ হেক্টর জমি দরকার হলেও মাত্র ০.৯ হেক্টর জমি এখনও পর্যন্ত অধিগ্রহণ করা সম্ভব হয়েছে৷ চলতি বছর ডিসেম্বর মধ্যে জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ করতে উঠে পড়ে লেগেছে স্থানীয় প্রশাসন৷

[বন্যাবিধ্বস্ত হয়েও কেরলের সাহায্যে এক কোটি টাকা দান করল উপেক্ষিত নাগাল্যান্ড]

মুম্বই-আহমেদাবাদ বুলেট ট্রেন ও মুম্বই-ভদোদরা এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের জন্য অন্তত এক হাজার একর জমি অধিগ্রহণ করবে সরকার৷ এই অধিগৃহীত জমির সিংহভাগ চাষের জমি৷ কৃষিজমি অধিগ্রহণের প্রতিবাদ জানিয়ে লাল ঝান্ডা হাতে মাস তিনেক আগে পথে নামেন থানে ও পালঘর জেলার ৬০টি গ্রামের অন্তত ৫০ হাজার কৃষক৷ প্রায় দেড় কিলোমিটার লম্বা মিছিল থেকে দাবি ওঠে, বিকল্প ব্যবস্থা ছাড়া কোনওভাবে জমি অধিগ্রহণ হতে দেওয়া যাবে না৷ স্থানীয় বাসিন্দাদের ক্ষোভ মেটাতে রেল কর্তৃপক্ষের এই ঘোষণা বলে জানা গিয়েছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে