BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্কুটি না পেয়ে উড়ালপুল থেকে ঝাঁপ কিশোরীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 25, 2016 1:24 pm|    Updated: May 25, 2016 1:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার শেষ হওয়ার পর বাবা-মায়ের কাছে স্কুটি কিনে দেওয়ার আবদার করেছিল তৃষা (কাল্পনিক নাম)৷ তখনকার মতো তাকে নিরস্ত করে তার বাবা-মা৷ তাঁরা বুঝতে পারেননি স্কুটির বিষয়টা তাঁদের আদরের মেয়ের মাথায় কতটা চেপে বসেছে৷ তাঁরা ভেবেছিলেন, অন্য আবদারের মতো এটির নেশাও সাময়িক, পরীক্ষার ফল বেরনোর পর এই স্কুটির নেশাও কেটে যাবে৷ কিন্তু তাঁরা ভুল ভেবেছিলেন৷

নির্দিষ্ট দিনে ফল বেরতে দেখা যায়, দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ডের পরীক্ষায় সফল হয়েছে দিল্লির বাসিন্দা বছর পনেরোর তৃষা৷ কিন্তু স্কুটির ভূত তো অত সহজে যাওয়ার নয়৷ বন্ধুদের সামনে যে নিত্যদিন প্রেস্টিজ পাংচার হয়েই যাচ্ছে৷ অগত্যা আবারও স্কুটির আবদার করে বসে সে৷ কিন্তু আর্থিক ভাবে দুর্বল চতুর্থ শ্রেনির কর্মচারী বাবার পক্ষে তৃষার এই আবদার মেনে নেওয়া সম্ভব হয়নি৷ সে কথাই তৃষাকে বোঝানোর চেষ্টা করে তার বাবা-মা৷ কিন্তু অভিমানী কিশোরী কোনও কথাই শুনতে চায়নি৷ একছুটে উত্তর দিল্লির জাহাঙ্গিরপুরার বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসে সে৷ পৌঁছে যায় বাড়ির কাছে মুকারবা উড়ালপুলে৷ দুপুরের ব্যস্ত সময় তখন উড়ালপুলে গাড়ির লম্বা লাইন৷ সে সবের নজর এড়িয়ে সটাং উড়ালপুল থেকে নিচে ঝাঁপ দেয় বছর পনেরোর কিশোরীটি৷ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার বেলা পৌনে দু’টো নাগাদ৷ তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের তৎপরতায় প্রাণে বেঁচে যায় সে৷ আহত কিশোরীকে উদ্ধার করে কাছের বাবু জগজীবন রাম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ এখন বিপণ্মুক্ত হলেও হাতে আঘাত লেগেছে ওই কিশোরীর৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement