BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর, ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করার ভাবনা মোদি সরকারের

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 3, 2019 9:13 pm|    Updated: July 4, 2019 12:24 pm

Govt set to ban e-cigarettes by calling them drugs

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার সানফ্রান্সিককোর পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত মোদি সরকারের৷ ড্রাগ জাতীয় মাদক হিসাবে চিহ্নিত করে শীঘ্রই সমগ্র দেশে ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করতে চলেছে কেন্দ্র৷ সূত্রের খবর, দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় এসে ১০০ দিনের মধ্যে যে যে সিদ্ধান্তগুলি কার্যকর করার ভাবনা ছিল মোদি সরকারের, তার মধ্যে ই-সিগারেট নিষিদ্ধকরণ ছিল অন্যতম৷ এবং সেই কাজেই তৎপর হয়েছে নয়াদিল্লি৷

[ আরও পড়ুন: শ্রীঘরে বন্দি খুন প্রভু, পোষ্যর সেবায় ব্যস্ত পুলিশ ]

জানা গিয়েছে, বর্তমান আইন মেনে এই পদক্ষেপ কার্যকর করতে বাধার মুখে পড়তে হতে পারে সরকারকে৷ সেই প্রতিবন্ধকতা এড়াতে ইতিমধ্যে গঠিত হয়েছে একটি প্যানেল৷ প্যানেলের সদস্যরাই ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করার কাজ সুগম করবে৷ যাঁরা চেন স্মোকার অর্থাৎ সিগারেটের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকেন, নিকোটিনের কুপ্রভাব থেকে বাঁচতে তাঁরা অনেক সময় ই-সিগারেট বা ইলেকট্রনিক সিগারেটের সাহায্য নেন৷ কারণ, ই-সিগারেটে নিকোটিন না থাকায়, তা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর নয় বলেই দাবি একাংশের৷ তবে এর উলটো মতও আছে। গবেষণা বলছে, নিকোটিন স্বাস্থ্যের পক্ষে যেমন ক্ষতিকর, তেমনই বিপজ্জনক ই-সিগারেটও৷ এছাড়া একটা নেশা ছাড়ানোর জন্য, অন্য একটা নেশা সামগ্রী ব্যবহার করাও মোটেই ভাল নয় এবং তা আর একটা নেশা করাই সমান বলে দাবি গবেষকদের৷ এই যুক্তিতেই ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করা প্রয়োজন বলে মত মোদি সরকারের৷

[ আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ইস্তফাপত্র দিয়ে শেষমেশ পদ ছেড়েই দিলেন রাহুল গান্ধী ]

এদিকে আবার আইন অনুযায়ী,  সিগারেট বা টোবাকো জাতীয় পণ্যকে নিষিদ্ধ করতে পারে না কেন্দ্রীয় সরকার৷ কেবলমাত্র এই জাতীয় পণ্যের বিক্রি নিয়ন্ত্রণ করতে পারে সরকার৷ জানা গিয়েছে, বাধ্যবাধকতা এড়াতেই এবার একটি প্যানেল তৈরি করেছে মোদি সরকার৷ যাঁরা এই আইনের বিষয়টি খতিয়ে দেখে ই-সিগারেট বন্ধের ব্যবস্থা করবে৷ সেক্ষেত্রে ড্রাগের মতো মাদকের তকমা দিয়ে ইলেকট্রনিক সিগারেট বন্ধের কথা ভাবছে সরকার৷ সমীক্ষা বলছে, ই-সিগারেট খাওয়া বর্তমান প্রজন্মের কাছে একটা ফ্যাশনের বিষয় হয়ে উঠেছে৷ সেকারণেই ই-সিগারেটের বিক্রিও বেড়েছে৷ জানা গিয়েছে, বর্তমানে ভারতে ৪৬০টির বেশি ইলেকট্রনিক সিগারেটের ব্র্যান্ড রয়েছে৷ যাঁরা ৭৭০০-র বেশি ফ্লেভার বা গন্ধের সিগারেট তৈরি করে৷ ফলে দিনদিন বাড়ছে এই সিগারেটের চাহিদা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে