BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যৌন হেনস্তা করেই খুন পডুয়াকে? গুরুগ্রামের ঘটনায় আতঙ্কে অভিভাবকরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 8, 2017 3:27 pm|    Updated: September 8, 2017 3:30 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গুরুগ্রামের একটি বেসরকারি স্কুলের শৌচাগার থেকে উদ্ধার হল এক পড়ুয়ার রক্তাক্ত দেহ। ঘটনায় স্থানীয় এক বাস কডাক্টরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটক করা হয়েছে আরও পাঁচজনকে। এদিকে, শুক্রবার এই ঘটনা জানাজানি হতেই স্কুলের সামনে তুমুল বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। ভাঙচুরও চালান তাঁরা।

[ডেরার সদর দপ্তরে তল্লাশি চালিয়ে কী কী উদ্ধার হল জানেন?]

পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত ছাত্রের নাম প্রদ্যুম্ন। গুরুগ্রামে রেয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত সে। রোজকার মতোই শুক্রবারও বাবার সঙ্গে স্কুলে গিয়েছিল প্রদ্যুম্ন। সকালে আটটা নাগাদ স্কুলের শৌচাগারের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে ছটফট করতে দেখেন স্কুলের এক অন্য পড়ুয়া। গুরুগ্রামে রেয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল নীরজা বাদ্রা বলেন, ‘ আমি ক্লাস নিতে যাচ্ছিলাম। তখন স্কুলের এক বাগানকর্মী ও ছাত্র এসে আমাকে ঘটনার কথা জানায়। তড়িঘড়ি শৌচাগারে সামনে গিয়ে দেখি, প্রদ্যুম্ন রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। সঙ্গে সঙ্গে ওকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাই।’  যদিও শিশুটিকে বাঁচানো যায়নি। হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকরা প্রদ্যুম্নকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[১৫ মহিলাকে ব্ল্যাকমেল করে কোটি টাকা লোপাট, পুলিশের জালে ফিল্মি প্রতারক]

ঘটনার তদন্তে রেয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে যান গুরুগ্রামের ভারপ্রাপ্ত সমরদীপ সিং। ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন ফরে্নসিক বিশেষজ্ঞরা। বিকেলে স্থানীয় এক বাস কডাক্টরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আটক করা হয় বাসের চালক, স্কুলের এক বাগানকর্মী-সহ আরও পাঁচজনকে। প্রদ্যুম্নের সহপাঠীরা জানিয়েছে, প্রতিদিন স্কুলের আসার পর একবার শৌচাগারে যেত সে। পুলিশের অনুমান, অভিযুক্ত সম্ভবত সেকথা জানত। শুক্রবার সকালে শৌচাগারে যাওয়ার পর, প্রদ্যুম্নকে যৌন হেনস্তার করার চেষ্টা করে সে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ছুরিও উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ছাত্রের দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে স্কুলের সিসিটিভি ফুটেজও।

[সমকামী হওয়ার ‘অপরাধ’, বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল থেকে বহিষ্কৃত ছাত্রী]

এদিকে শুক্রবার সকালে এই ঘটনা জানাজানি হতেই গুরুগ্রামের রেয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। চলে ভাঙচুরও। ছেলের মৃত্যুতে স্কুলের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রদ্যুম্নের বাবা। তাঁর অভিযোগ, স্কুলের কোনও কর্মী বা উঁচু ক্লাসের কোনও পড়ুয়াই এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

দেখুন ভিডিও:

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement