BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

যৌনতায় সায় নেই, স্ত্রীকে গলা টিপে খুন স্বামীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 18, 2017 12:48 pm|    Updated: September 23, 2019 4:21 pm

Haryana: Man killed wife for refusing sex

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেমের সম্পর্কে যৌনতা খুবই স্বাভাবিক। তাই স্ত্রীর সঙ্গে স্বামী যৌনতায় লিপ্ত হবেন, তাতেও বলার কিছু নেই। কিন্তু, স্ত্রী যদি যৌনতায় সম্মতি না দেন, তাহলে?  স্ত্রীকে কি শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করতে পারেন স্বামী? আর যদি সেটা হয়, তাহলে স্বামীর বিরুদ্ধে কী বৈবাহিক ধর্ষণের অভিযোগ আনা যায়? এসব প্রশ্নে বিতর্কের শেষ নেই। বিষয়টি এখন আদালতের বিচারাধীন। যদিও এই বিষয়টি নিয়ে কোনও মাথাব্যাথা নেই হরিয়ানার বাসিন্দা সঞ্জীব কুমারের। শারীরিক সম্পর্কে রাজি না হওয়ায়, রাগের মাথায় ওই ব্যক্তি স্ত্রীকে খুন করে দিয়েছে বলে অভিযোগ। সঞ্জীবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগে মামলাও রুজু হয়েছে।

[নির্বাচনের আগেই গুজরাটে ছড়াল বিস্ফোরক ভিডিও]

হরিয়ানার কুরুক্ষেত্র জেলার জ্যোতিসার এলাকার বাসিন্দা সঞ্জীব কুমার। স্ত্রী সুমনের সঙ্গে প্রায় একদশকের দাম্পত্য জীবন। ওই দম্পতির দুটি সন্তান রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার মধ্যরাতে স্ত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে গিয়েছিল সঞ্জীব। কিন্তু, স্ত্রী রাজি হননি। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর তুমুল অশান্তি হয়। রাগের মাথায় স্ত্রী সুমনের গলা টিপে ধরে সঞ্জীব। তাতেই মৃত্যু হয় তিরিশ বছরের ওই মহিলা। পুলিশের দাবি, জেরায় স্ত্রীকে খুন করার কথা স্বীকার করেছে সঞ্জীব। তদন্তকারীদের বছর ৩৫-এর ওই ব্যক্তি জানিয়েছে, স্ত্রীর সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হতে চেয়েছিল সে। কিন্তু, স্ত্রী রাজি হননি। উলটে জোর করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে চাওয়ার অশান্তি করেন তিনি। তাতেই মাথা ঠিক রাখতে না পেরে সুমনের গলা টিপে ধরে সঞ্জীব। অভিযুক্তের দাবি, প্রথমে সে ভেবেছিল, স্ত্রী হয়তো জ্ঞান হারিয়েছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু, পরের দিন সকালে সঞ্জীব বুঝতে পারে, সুমন মারা গিয়েছেন।

একান্তে মধ্যাহ্নভোজে ব্যস্ত রাহুল-তেজস্বী, নেটিজেনরা কী বললেন জানেন?]

এই ঘটনায় সঞ্জীব কুমার-সহ তার পরিবারের ছ’জনের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার ভাই। তবে এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র মৃতার স্বামীকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। হরিয়ানার কুরুক্ষেত্রের ডেপুটি পুলিশ সুপার গুরমল সিং জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্তে দেখা গিয়েছে, বৈবাহিক সম্পর্ক নিয়ে গণ্ডগোলের জেরেই এই খুন। তদন্তে যদি এই খুনের সঙ্গে অভিযুক্তের পরিবারের অন্য কারও জড়িত থাকার বিষয়টি সামনে আসে, তাহলে বাকি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[ডোকলাম বিবাদের পর এই প্রথম বৈঠকে ভারত-চিন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে