৩০ চৈত্র  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জমজমাট শহরের মাঝেই যেখানে বাস অশরীরীদের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 5, 2016 9:09 pm|    Updated: September 5, 2016 9:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঐতিহাসিক শহর এই লখনউ৷ এখানে প্রতিটি বাড়ির দেওয়ালে লুকিয়ে রয়েছে বহু ইতিহাস৷ বহু অজানা তথ্য৷ রয়েছে এমন অজানা গল্প, যেই গল্পের আপাতভাবে নেই কোনও যুক্তি৷ সেই গল্প শুধু ভীতির সঞ্চার করতে পারে মানুষের মনে৷ মানুষকে পৌঁছে দিতে পারে মরণের সীমানায়৷

লখনউয়ের এমনই এক জায়গা হল নিরালা নগর৷ জায়গাটির নামেই রয়েছে অলৌকিক আবেশ৷ নামটিই বুঝিয়ে দিচ্ছে এই জায়গা পরিত্যক্ত এবং নির্জন৷ এখানে যাতায়ত করেন না কেউ৷ কিন্তু সাধারণ মানুষের বিশেষ যাতায়াত না থাকলেও এই নিরালা নগর কিন্তু একেবারেই নিরালা এমনটা নয়৷ এই বিশেষ নগরে বাস তেনাদের৷

শোনা যায়, লখনউয়ের একেবারে কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত এই নিরালা নগর নাকি এতটাই ভয়াবহ যে স্থানীয় বাসিন্দারা এই অঞ্চলকে ভৌতিক বলে চিহ্নিত করেছেন৷ শুধু তাই নয়, শোনা যায় ১৯৬০ সালে এই নগরের জমি লখনউ উন্নয়ন দফতরের হাতে চলে গেলেও, এই জায়গার বেশি কোনও উন্নতি সাধন করতে পারেনি প্রশাসন৷

শোনা যায়, বহু আগে নাকি দুটি গোরস্থান ছিল এই নিরালা নগরে৷ মৃত্যুর পরে বহু মানুষের ঠিকানা হত এই নিরালা নগর৷ হিন্দু শশ্মান থেকে শুরু করে মুসলমানদের গোরস্থান, সবই ছিল এই নিরালা নগরে৷

শোনা যায়, আজও পথ চলতি মানুষেরা এই জায়গা দিয়ে যাতায়াত করতে চান না৷ কারণ আজও এই পথে যাওয়ার সময় বহু ভৌতিক ঘটনার সম্মূখীন হন সাধারণ মানুষ৷ এই পথ দিয়ে যাতায়াতের সময় বহু অবয়ব নাকি দেখতে পাওয়া যায় এই রাস্তায়৷ পাশাপাশি, রাস্তার ধারে গাছে ঝুলতে দেখা যায় কোনও মহিলার দেহ৷ সেই সঙ্গে, সাদা পোশাক পরা মহিলাও বহু পথ চলতি মানুষের জীবনে মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে দাঁড়ায়৷

শোনা যায়, অতৃপ্ত আত্মারাই নাকি এই স্থানে ঘোরাফেরা করে এবং জীবনকে ভয়াবহ করে তোলে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement