০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ১৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভোটের আগে দেখনদারি! মহিলাদের সঙ্গে ফসল কাটলেন হেমা মালিনী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 1, 2019 4:23 pm|    Updated: April 1, 2019 4:25 pm

Hema Malini seen working in field with workers harvesting wheat crop.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক : ঠ্যালায় না পড়লে বেড়াল গাছে ওঠে না! কথাটা প্রতীকী হলেও কার্যকরী। উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় আসা মানুষদের, নির্বাচন এলেই বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে দেখা যায়। কেউ বাড়ির বাসন মেজে দেওয়ার কথা বলেন, তো কেউ ভোটারের রান্নাঘরে ঢুকে শুরু করেন খুন্তি নাড়তে। প্রচারে বেরিয়ে ভোটারের কোল থেকে তাঁর সন্তানকে তুলে নিয়ে নাকও মুছিয়ে দেন কেউ কেউ। লক্ষ্য একটাই, যে কোনও উপায়ে ভোট জোগাড়!

লোকসভা নির্বাচনের ঢাকে কাঠি পড়তেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চোখে পড়ছে এই ধরনের টুকরো টুকরো নানান ছবি। এই রকমের কিছু ছবি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে শেয়ার করেছেন মথুরার বিজেপি প্রার্থী হেমা মালিনী। তাতে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রী থেকে রাজনৈতিক নেত্রীতে রূপান্তরিত হওয়া হেমা মালিনী, প্রথমদিন প্রচারে গিয়ে মহিলা কৃষকদের সঙ্গে ক্ষেত থেকে ফসল কাটছেন। তারপর সেই গমের আঁটি বেঁধে এক মহিলার হাতে তুলে দিচ্ছেন। এই ছবিগুলোর নিচে লেখা, “গোর্বধন ক্ষেত্র এলাকায় প্রচারের গিয়ে সেখানকার ক্ষেতে কর্মরত মহিলাদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পেলাম। এখানে আমার প্রথমদিনের প্রচারের সেইসব মুহূর্তের কিছু ছবি আপনাদের জন্য শেয়ার করলাম।”

[আরও পড়ুন- ক্ষমতায় এলে ২২ লক্ষ চাকরি, প্রতিশ্রুতির বন্যা রাহুলের  ]

২০১৪ সালে রাষ্ট্রীয় লোকদলের প্রার্থী জয়ন্ত চৌধুরিকে হারিয়ে মথুরা লোকসভা থেকে সাংসদ হয়েছিলেন হেমা মালিনী। এবার ফের সেখান থেকেই বিজেপি প্রার্থী হিসেবে ভোটে দাঁড়িয়েছেন। এবার জিতলে এখানকার মানুষদের জন্য কী করবেন? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে বলিউডের ড্রিমগার্ল বলেন, “প্রচারে বেরিয়ে দেখেছি মানুষ আমাকে আনন্দের সঙ্গেই অর্ভ্যথনা করছেন। মথুরার মানুষের জন্য অনেককিছু করেছি বলেই তাঁরা আমাকে স্বাগত জানাচ্ছেন। অবশ্য এখানে যা করেছি তার জন্য আমিও অত্যন্ত গর্বিত। পাশাপাশি ভবিষ্যতে এখানকার আরও উন্নয়ন করাই আমার একমাত্র লক্ষ্য। মথুরায় আমি যেভাবে উন্নয়নের কাজ করেছি আগে তা কেউ করেনি।”

[আরও পড়ুন- দু’ণ্টায় অন্তত ন’বার কেঁপে উঠল আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ]

যদিও মথুরা শহরের উন্নয়নের জন্য হেমা মালিনী কিছুই করেননি বলে দাবি করছেন স্থানীয় এক বাসিন্দা। তাঁর অভিযোগ, “মথুরায় এলেই সোজা গেস্ট হাউসে গিয়ে বিশ্রাম নিতে বেশি দেখা যায় হেমা মালিনীকে। তাঁর সঙ্গে দেখা করার জন্য যে প্রথর রোদের মধ্যে অনেক সাধারণ মানুষ অপেক্ষা করে আছেন, তা নিয়ে মাথাই ঘামান না। এমনকী এই এলাকার জন্য কিছু করেননি তিনি। এইসব দেখার পরেও আমরা কী করে তাঁকে ভোট দিই? মথুরার মতো পবিত্র এলাকায় পরিশ্রুত পানীয় জল দূরে থাক পর্যাপ্ত শৌচালয় পর্যন্ত নেই।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে