২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিয়ার গ্রিলসের সঙ্গে মোদির ‘মেগা শো’ সম্প্রচারিত হওয়ার পর, তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। কেউ প্রধানমন্ত্রীর প্রকৃতি প্রেমের প্রশংসা করেছেন, আবার কেউ মোদির সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। তবে শুধু প্রশংসা নয়, সমালোচনাও বিস্তর জুটেছে প্রধানমন্ত্রীর ভাগ্যে। অনেকেই মোদির এই প্রচেষ্টাকে অতিনাটকীয়তা বলছেন। নেটদুনিয়ায় একাধিকবার প্রশ্ন উঠেছে, বিয়ার গ্রিলস এবং মোদির ভাষা সমস্যা নিয়েও। ‘Man vs Wild’-এ দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি হিন্দিতে বলছেন, আর বিয়ার গ্রিলস জবাব দিচ্ছেন ইংরেজিতে। তিনি দিব্যি হিন্দি বুঝতেও পারছেন। যা নিয়ে নেটদুনিয়ায় হাসাহাসিও হয়। যা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির চোখ এড়ায়নি। ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে তাই মোদি নিজেই বলে গেলেন কীভাবে তাঁর এবং বিয়ার গ্রিলসের মধ্যেকার এই ভাষার সমস্যা মিটল।

[আরও পড়ুন: অবশেষে কাশ্মীরের সচিবালয় থেকে সরল পৃথক পতাকা, উড়ছে তেরঙ্গা]

‘মন কি বাত’- এ প্রধানমন্ত্রী জানান, “বহু মানুষই জানতে চেয়েছেন, কী করে বিয়ার গ্রিলস আমার হিন্দি বুঝতে পারলেন? অনেকে জিজ্ঞাসা করেছেন, ওই অনুষ্ঠানটি কি এডিট করা হয়েছে? বা বারবার তার শুটিং করা হয়েছে? এর মধ্যে কোনও গোপনীয়তা নেই, অনেকের মনেই এ প্রশ্ন আসছে। তাই আজ আমি রহস্য ফাঁস করতে চাই। আসলে, প্রযুক্তিই আমাদের মধ্যে সেতুবন্ধনের কাজ করেছে। একটা কর্ডলেস যন্ত্র গ্রিলসের কানে শুটিংয়ের সময় লাগানো ছিল। তার মাধ্যমেই আমরা হিন্দি কথাগুলো সঙ্গে সঙ্গে ইংরেজিতে অনুবাদ হয়ে যেত। ওনার আর বুঝতে অসুবিধা হত না। কথোপকথনও খুব সহজে হত। এটা একটা অসাধারণ প্রযুক্তি।”

[আরও পড়ুন: ছিলেন বিজেপির ক্রাইসিস ম্যানেজার, নিজেকে প্রণবের ‘ফ্যান’ বলতেন অরুণ জেটলি]

উল্লেখ্য, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি, পুলওয়ামা হামলার দিনই উত্তরাখণ্ডের জিম করবেট ন্যাশনাল পার্কে বিয়ার গ্রিলসের সঙ্গে ওই বিশেষ পর্বের শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন মোদি৷ তার ফাঁকে ফাঁকে দুজনের একসঙ্গে জঙ্গলে ঘুরে বেড়িয়েছেন, গল্পগুজব করেছেন, সেলফি তুলেছেন৷ সেই পর্বটি ডিসকভারি চ্যানেলে সম্প্রচারিত হয় ১২ আগস্ট।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং