BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘RJD ভোটে জিতলেই বিহারে আশ্রয় নেবে কাশ্মীরি জঙ্গিরা’, বিতর্কিত মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 14, 2020 5:26 pm|    Updated: October 14, 2020 5:26 pm

An Images

নিত্যানন্দ রাই

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘আরজেডি নির্বাচন জিতলেই বিহারে আশ্রয় নেবে কাশ্মীরি জঙ্গিরা।’ বৈশালি জেলার মহানার বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে এই মন্তব্যই করলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। এই ঘটনার জেরে প্রবল বিতর্ক দেখা দিয়েছে বিহারে। এর তীব্র নিন্দা করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি করেছে রাষ্ট্রীয় জনতা দল (RJD)।

মঙ্গলবার বৈশালি জেলার মহানার বিধানসভা এলাকায় একটি নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই (Nityanand Rai)। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের প্রাক্তন শাসকদল আরজেডিকে তীব্র আক্রমণ করেন তিনি। বলেন, ‘যদি রাষ্ট্রীয় জনতা দল বিহারে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে জিতে যায় তাহলে কাশ্মীরি জঙ্গিরা এই রাজ্যে আশ্রয় নেবে। এনডিএ সরকার কাশ্মীর থেকে জঙ্গিদের নির্মূল করছে। কিন্তু, আমি নিশ্চিত যে যদি বিহারে ফের আরজেডি ক্ষমতায় ফিরে আসে তাহলে জঙ্গিরা এখানে আশ্রয় নেবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আমাকে একটা দায়িত্ব দিয়েছেন। আর আমরা বিহারে এই জিনিস কোনওভাবেই বরদাস্ত করব না।’

[আরও পড়ুন: ‌বিপাকে ফ্লিপকার্ট–পতঞ্জলি! দূষণ সংক্রান্ত নিয়ম ভাঙায় ২ সংস্থাকে নোটিস দূষণ নিয়ন্ত্রক পর্ষদের]

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই বক্তব্য শোনার পরেই তীব্র নিন্দা করে তাঁর সমালোচনায় মুখর হয়েছে লালুপ্রসাদ যাদবের দল আরজেডি। এপ্রসঙ্গে তাদের মুখপাত্র চিত্তরঞ্জন গগন বলেন, ‘নিত্যানন্দ রাই যে মন্তব্য করেছেন তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। একটি নির্বাচনী জনসভায় এটা কী ধরনের ভাষা ব্যবহার করছেন তিনি? এর জন্য বিহারের মানুষের কাছে তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে। তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী পদে রয়েছেন। কিন্তু, ওই পদে থাকার কোনও যোগ্যতাই তাঁর নেই।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগামী ২৮ অক্টোবর থেকে তিন দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হতে চলেছে বিহারে (Bihar Assembly elections 2020)। ২৮ তারিখ প্রথম, ৩ নভেম্বর দ্বিতীয় আর ৭ তারিখ তৃতীয় দফার ভোট হওয়ার কথা। আর ফলাফল ঘোষণা হবে নভেম্বরের ১০ তারিখ।

[আরও পড়ুন: শীতের আগেই ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টায় প্রায় আড়াইশো জঙ্গি! জানালেন সেনা কম্যান্ডার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement