২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রামদেবের বিরুদ্ধে করা সব অভিযোগ ফিরিয়ে নিতে রাজি IMA, তবে বিশেষ শর্তে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 29, 2021 3:05 pm|    Updated: May 29, 2021 3:05 pm

IMA to consider withdrawing police plaints if Yog Guru Baba Ramdev takes back remarks | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘অ্যালোপাথি’ (Allopathy) মন্তব্যের কারণে বাবা রামদেবের (Baba Ramdev) বিরুদ্ধে IMA তথা ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন ১ হাজার টাকার কোটি টাকার মানহানির মামলা করেছে। উঠেছে তাঁর গ্রেপ্তারির দাবিও। এই অবস্থায় আইএমএ’র জাতীয় প্রধান ডা. জেএ জয়ালাল সাফ জানিয়ে দিলেন, রামদেবের সঙ্গে তাঁদের কোনও ব্যক্তিগত সমস্যা নেই। কেবল নিজের করা মন্তব্যগুলি প্রত্যাহার করে নিন যোগগুরু। তাহলেই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে।

ঠিক কী জানিয়েছেন জয়ালাল? সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর সঙ্গে কথা বলার সময় তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘‘যোগগুরু রামদেবকে আমাদের কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু করোনার (CoronaVirus) টিকাকরণ (COVID vaccine) নিয়ে করা তাঁর মন্তব্যগুলি মানুষের মনে সংশয় তৈরি করতে পারে। তাদের বিভ্রান্ত করতে পারে। তাঁর অনুগামীর সংখ্যা অনেক। তাই বিষয়টি আমাদের উদ্বিগ্ন করে রেখেছে। যদি তিনি এবিষয়ে করা তাঁর সব মন্তব্য প্রত্যাহার করে নেন তাহলে IMA তাঁর বিরুদ্ধে থানায় করা অভিযোগ ও তাঁকে পাঠানো মানহানির নোটিস সব ফিরিয়ে নেবে।’’

[আরও পড়ুন: ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের প্রয়োজনীয় ওষুধ থেকে GST প্রত্যাহার, মহামারী আবহে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের]

এদিকে আইএমএ’র উত্তরাখণ্ড শাখা যোগগুরুকে সরাসরি বিতর্কের চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে। তাদের সাফ কথা, রামদেবকে বলতে হবে কোন অ্যালোপ্যাথিক হাসপাতালে পতঞ্জলির ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা হয়। এখনও পর্যন্ত তাদের কথা সেই চ্যালেঞ্জের জবাবে রামদেবের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সম্প্রতি, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এক ভিডিওতে যোগগুরু রামদেবকে বলতে শোনা গিয়েছিল,‘‘অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা আসলে বোকামি। চিকিৎসার নামে তামাশা চলে। লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছে শুধুমাত্র অ্যালোপ্যাথি ওষুধ খেয়ে।” যোগগুরুর দাবি ছিল, করোনার বিরুদ্ধে একের পর এক অ্যালোপ্যাথি ওষুধ ব্যর্থ হচ্ছে। কারণ, ওই চিকিৎসা পদ্ধতিতে রোগের আসল কারণ অনুসন্ধানই করা হয় না। এই মন্তব্যেরে জেরে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

বাধ্য হয়ে সাফাই দেয় রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলি। চাপে পড়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন চিঠি লিখে রামদেবকে ক্ষমা চাইতে অনুরোধ করেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বানে বাবা রামদেব প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলেও পালটা অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে গোটা ২৫ প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন। যোগগুরুর প্রশ্ন, অ্যালোপ্যাথি যদি এতই ভাল হবে, তাহলে চিকিৎসকরা অসুস্থ হন কেন। অ্যালোপ্যাথি ২০০ বছরেও বহু রোগের ওষুধ তৈরি করতে পারেনি কেন? পরে তিনি আরও জানান যে, তাঁকে গ্রেপ্তার করার ক্ষমতা কারও নেই। তাঁর এই ধরনের মন্তব্যগুলি ঘিরে প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

[আরও পড়ুন: শীতলকুচি কাণ্ডে পদক্ষেপ করুন, রাজ্য পুলিশের ডিজিকে নির্দেশ জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে