২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

COVID-19 Vaccine: আরও দুই কোভিড টিকায় ছাড়পত্র কেন্দ্রের, অনুমোদন পেল অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগও

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 28, 2021 11:42 am|    Updated: December 28, 2021 12:18 pm

India gets 2 more COVID-19 Vaccines, Covovax And Corbevax and 1 Anti-Viral Drug Molnupiravir | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: কোভিড যুদ্ধে আরও এক ধাপ এগোল দেশ। এবার আরও দু’টি কোভিড টিকা ব্যবহারে ছাড়পত্র দিল কেন্দ্র। জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য অনুমোদন পেল একটি অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগও (Anti Viral Drug)। মঙ্গলবার টুইট করে সেই খবর দিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডব্য। সবমিলিয়ে দেশে মোট আটটি করোনা টিকা ব্যবহারে অনুমোদন দিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সরকার। 

মন্ত্রী জানিয়েছেন, কোভিশিল্ড, কোভ্যাক্সিন, স্পুটনিক ভি-সহ ৬টি টিকার পাশাপাশি কর্বেভ্যাক্স (CORBEVAX vaccine), কোভোভ্যাক্স (COVOVAX vaccine)  টিকাও ব্যবহার করা যাবে ভারতে। জরুরি পরিস্থিতিতে ব্যবহার হবে অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগ মলনুপিরাভির-ও। 

 

[আরও পড়ুন: Royal Bengal Tiger: শেষ ‘বাঘবন্দির খেলা’, ৬ দিন পর জালে কুলতলির রয়্যাল বেঙ্গল]

কর্বেভ্যাক্স টিকাটিও ভারতে তৈরি। প্রস্তুতকারক সংস্থা হায়দরাবাদের সংস্থা বায়োলজিক্যাল-ই। তবে এটি-ই দেশে তৈরি প্রথম ‘আরবিডি প্রোটিন সাব-ইউনিট ভ্যাকসিন’। দেশের মাটিতে আরও একটি কোভিড টিকা তৈরি হওয়ায় স্বাভাবিকভাবে উচ্ছ্বসিত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে মান্ডব্য লিখেছেন, “হ্যাট ট্রিক! ভারত এবার তৃতীয় টিকাও তৈরি করে ফেলল।”

এদিকে ন্যানো পার্টিকেল টিকা কোভোভ্যাক্স উৎপাদন করবে পুণের সেরাম ইন্সটিটিউট। যারা দেশের প্রথম টিকা কোভিশিল্ড তৈরি করেছিল। সেই নিরিখে সেরামের দ্বিতীয় টিকাও এবার বাজারে আসতে চলেছে। প্রসঙ্গত, এর আগে দেশে মোট ছ’টি করোনা টিকা ছাড়পত্র পেয়েছিল। এর মধ্যে রয়েছে কোভিশিল্ড, কোভ্যাক্সিন, স্পুটনিক ভি, জাইকোভ-ডি, মর্ডানা এবং জনসন অ্যান্ড জনসন। 

অন্যদিকে মহামারীর প্রথমভাগে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য ছাড়পত্র পেয়েছিল রেমডিসিভির। চিকিৎসা ক্ষেত্রে সাফল্য-ও পেয়েছিল ওষুধটি। পরে অবশ্য করোনা চিকিৎসায় এই ওষুধটির ব্যবহার নিষিদ্ধ করে কেন্দ্র। এবার কোভিড চিকিৎসায় ছাড়পত্র পেল আরও একটি অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগ-মলনুপিরাভির (Molnupiravir)। দেশের ১৩টি সংস্থায় তৈরি হবে এই ওষুধ।

[আরও পড়ুন: বাঙালি হওয়ার চেষ্টা! নিরামিষ ভুলে বৈঠকে বিজেপি নেতাদের পাতে এবার মাছ]

উল্লেখ্য, সিপলা, ড. রেড্ডির মতো একাধিক ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা ওষুধটিকে ছাড়পত্র দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানিয়েছিল। আমেরিকা ওষুধটিকে ছাড়পত্র দেওয়ার পরই অনুমোদন দিল ভারত-ও। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে