×

৭ চৈত্র  ১৪২৫  শনিবার ২৩ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুনীতা উইলিয়ামস, কল্পনা চাওলার উত্তরসূরিরা তৈরি হচ্ছেন। ভারতের হয়ে মহাকাশে কাটিয়ে আসবেন ক’টা দিন। তেমনই পরিকল্পনা করেছে ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন, ইসরো। সাংবাদিক সম্মেলনে ইসরো প্রধান কে শিবন শোনালেন সেই আশার কথা। বললেন, ‘২০২১-এর শেষলগ্নে ভারত মহাকাশচারী পাঠাচ্ছে। মিশনের নাম গগনায়ন। তাতে মহিলা নভোচারীরাও অংশ নেবেন।’ ইসরো প্রধানের দাবি বাস্তবায়িত হলে, ভারত হবে বিশ্বের চতুর্থ দেশ, যারা স্বাধীনভাবে মহাকাশ যাত্রায় অংশ নিচ্ছে।

kalpna-sunita

দেশের মহাকাশ গবেষণায় ‘গগনায়ন’ প্রকল্পের কথা গত বছর স্বাধীনতা দিবসে ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বেঁধে দিয়েছিলেন লক্ষ্য। মহাকাশে ৩ ভারতীয় নভোচরকে অন্তত ৭ দিন কাটিয়ে আসতে হবে। তার প্রস্তুতির জন্য মাস খানেক আগে কেন্দ্রের তরফে ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। তারপর থেকে প্রকল্পের বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করেছে ইসরো। সূত্রের খবর, ২০২১-এর ডিসেম্বরের মধ্যে ভারতীয় নভোচরদের মহাকাশে পাঠানোর লক্ষ্য স্থির হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ৩ জনকে নির্বাচন করে দেশেই তাঁদের প্রশিক্ষণ হবে। পরে আকাশে ভেসে থাকার অত্যাধুনিক কয়েকটি প্রযুক্তি রপ্ত করতে তাঁদের পাঠানো হতে পারে রাশিয়ায়। এই প্রকল্পে মহিলাদের অংশগ্রহণ নিয়ে কে শিবন জানিয়েছেন, ‘যে দলটি মহাকাশে যাবে, তাতে মহিলা নভোচরও থাকবেন। সেইভাবে তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ভারতীয় সেনাবাহিনী বা সাধারণের মধ্যে থেকেও সেই সদস্যকে বেছে নেওয়া হতে পারে।’ এই প্রকল্পের জন্য জিএসএলভি মার্ক থ্রি উপগ্রহ পাঠানো হবে। মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছে স্পেস স্যুটও। গগনায়ন প্রকল্পে ভারতে সঙ্গে যৌথ প্রকল্পে থাকছে রাশিয়া এবং ফ্রান্স। এছাড়া দেশের মহাকাশ গবেষণাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে ২০২১-এর মধ্যে আরও দুটি চন্দ্রাভিযানের প্রস্তুতি সারছে।

                                 [‘আইনসিদ্ধ হলেও বাহিনীতে সমকামিতা বরদাস্ত নয়’, হুঁশিয়ারি সেনাপ্রধানের]

২০০৩ সালে মার্কিন মহাকাশ যান কলম্বিয়ার দুর্ঘটনায় মহাশূন্যেই মিলিয়ে গিয়েছিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত নভোচর কল্পনা চাওলা। আরেক ভারতকন্যা সুনীতা উইলিয়ামস মহাকাশে মহিলা হিসেবে সবচেয়ে বেশি সময় কাটিয়ে রেকর্ড করেছেন। তাঁদের পথ ধরেই এগোচ্ছে ভারতের মহিলা নভোচররা। ক্যালিফোর্নিয়া বা ভার্জিনিয়া নয়, একেবারে শ্রীহরিকোটা, দেশের মাটি থেকে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি মহাকাশযান চড়ে উড়বেন মহাশূন্যের পথে। দেশের হয়ে তৈরি করবেন রেকর্ড। এখন শুধু সেই দিনটার অপেক্ষা।    

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং