BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মুম্বই বিস্ফোরণের ‘মাস্টারমাইন্ড’ পাকিস্তান, নওয়াজের স্বীকারোক্তিতে সিলমোহর নির্মলার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 13, 2018 5:32 pm|    Updated: May 13, 2018 5:32 pm

Indian always knew Pak is the mastermind of Mumbai Attack, says Sitharaman

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সরব হলেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ২৬/১১ মুম্বই হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের হাত রয়েছে বলে সম্প্রতি স্বীকার করেছেন নওয়াজ। তাঁর সেই বক্তব্যেটিকে “গুরুত্বপূর্ণ স্বীকারোক্তি” বলে জানিয়েছেন সীতারমণ।

একটি সাংবাদিক বৈঠকে দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ বলেন, পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী যা বলেছেন, তা খুব গুরুত্বপূর্ণ স্বীকারোক্তি। ভারত সরকার সবসময়ই মনে করেছে যে, ২৬/১১-র মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড ছিল পাকিস্তান। এবার সেই দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীই সে কথা স্বীকার করলেন। “আমরা অবাক হইনি। আমরা আনন্দিত যে প্রমাণ বাইরে বেরিয়ে এসেছে।,” বলেছেন সীতারামণ।

[ মুম্বইকে রক্তাক্ত করেছিল পাক জঙ্গিরাই, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি নওয়াজের ]

সাংবাদিক বৈঠকে তিনি আরও বলেন, দেশের নিরাপত্তার দিকটি ভারতীয় সেনাকে আরও বেশি করে নিশ্চিত করতে হবে। সেই সঙ্গে দেশে যাতে কোনও সন্ত্রাসবাদের জন্ম না হয়, সেদিকেও নজর দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

সম্প্রতি পাকিস্তানের সংবাদপত্র ডন-এ পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, পাকিস্তানের মধ্যে অনেক জঙ্গিগোষ্ঠী সক্রিয়। সেই সঙ্গে তিনি এও স্বীকার করে নেন মুম্বই হামলার ছক পাকিস্তানে বসেই কষা হয়েছিল। ২০০৮ সাল থেকে রাওয়ালপিন্ডির অ্যান্টি-টেরোরিজম আদালতে এই মামলার শুনানি চলছে। এখনও কেন সেই শুনানি শেষ হয়নি তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন নওয়াজ। তবে মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সইদ বা মৌলানা মাসুদ আজহারের নাম নেননি তিনি। তাদের দল জামাত-উদ-দাওয়া বা জইশ-ই-মহম্মদেরও নাম তোলেননি।

[ আত্মরক্ষার জন্য ‘ধর্ষক’ স্বামীকে খুন, তরুণীকে মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি দিল আদালত ]

কিছুদিন আগে ভারতে কোটি কোটি টাকা অর্থ পাচারের অভিযোগ উঠেছিল পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে। পাকিস্তানের দুর্নীতি দমনকারী শাখা এই অভিযোগের তদন্ত শুরু করে। পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো (NAB) এই তথ্য প্রকাশ করেছে। বলেছে, পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে দেশের বাইরে প্রায় ৪৯০ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ উঠেছে। সীমান্তের একদিক থেকে অন্যদিকে তিনি টাকা লেনদেন করেছেন বলে অভিযোগ। যখন তিনি ইসলামাবাদে সরকার চালাচ্ছিলেন তখনই ঘটনাগুলি ঘটান বলে অভিযোগ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে