BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাঙালি বিএসএফ জওয়ানকে হত্যার বদলা নিল ভারত, খতম ১৫ পাক রেঞ্জার্স

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 4, 2018 8:13 am|    Updated: January 4, 2018 8:18 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক বিএসএফ জওয়ানকে হত্যার অপরাধে পাকিস্তানকে যোগ্য জবাব দিল ভারত। সূত্রের খবর, বুধবার তিনটি পাক সেনাঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছেন ভারতীয় জওয়ানরা। নিকেশ করেছেন অন্তত ১৫ জন পাক সেনাকে। সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর এত বড় মাপের অভিযান চালায়নি ভারত। ভারতের এই পদক্ষেপ বুঝিয়ে দিল, নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কোনও দুশমনকেই দেশের আব্রুর দিকে চোখ তুলে তাকাতে দেবে না ভারতের সশস্ত্র সেনা

[৫০০ টাকায় মিলছে ১০০ কোটি আধার কার্ডের তথ্য, ফাঁস অসাধু চক্রের কারসাজি]

বুধবার বিকেল চারটে নাগাদ জম্মু ও কাশ্মীরের সাম্বা সেক্টরে ৫০ বছরের বিএসএফের হেড কনস্টেবল বাঙালি রাধাপদ হাজরার দিকে বিনা প্ররোচনায় গুলি চালায় পাক রেঞ্জার্স। গুলিতে প্রাণ হারান রাধাপদবাবু। এরপরই বিএসএফ শপথ নেয়, যে তিনটি পাক ফরোয়ার্ড পোস্ট থেকে গুলি চলেছে, সূর্য ওঠার আগেই সেগুলি গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে। সেই মতো ছক কষে আজ ১৫ পাক রেঞ্জার্সকে খতম করল ভারতীয় সেনা। যদিও বিএসএফ বা প্রতিরক্ষামন্ত্রক এখনও এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেনি।

[ধর্মগুরুর আশ্রমে রমরমিয়ে মধুচক্র, আজই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির সম্ভাবনা]

জম্মুর বিএসএফ আইজি রাম অবতার এদিন বলেন, ‘গতকাল আমাদের এক বিএসএফ জওয়ান ফরোয়ার্ড পোস্টে যখন ডিউটি করছিলেন, সেই সময় পাক সেনা বিনা প্ররোচনায়, ছলের সাহায্যে তাঁকে হত্যা করে। বিএসএফ ওই নিন্দনীয় ঘটনার যোগ্য জবাব দিয়েছে।’ তিনি জানিয়েছেন, রাতেই এক বড়সড় অভিযান চালিয়ে পাক সেনার পরিকাঠামো নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে পাক সেনার সোলার প্যানেল ও অস্ত্রশস্ত্রের ভাণ্ডার। পাক সেনার পোস্টগুলির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলেও জানিয়েছেন আইজি।

[ভাঙড়ে মাও-যোগ! বেলঘরিয়ায় ধৃত সিপিআইএমএল রেড স্টার-এর ১১ সদস্য]

এদিকে, জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের ডিরেকটর জেনারেল এসপি বৈদ্য এদিনই নিহত বিএসএফ হেড কনস্টেবল নদিয়ার তেহট্টর বাসিন্দা রাধাপদ হাজরার মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে কড়া বার্তা দিয়ে আগেই জানিয়েছেন, একজন শহিদের মৃত্যুও বিফলে যেতে দেবে না ভারত। প্রতিটি রক্তবিন্দুর বদলা নেওয়া হবে।

army web unedited

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement