৩০ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

যাত্রীর নিরাপত্তায় নয়া উদ্যোগ, অভিযোগ জানানোর নয়া ওয়েবসাইট রেলের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 16, 2018 10:35 am|    Updated: February 16, 2018 10:35 am

Indian Railways launch website to address grievances, allegations

সুব্রত বিশ্বাস: খালি চোখে তাঁকে দেখা যেত না। একমাত্র লাল কাচের মাধ্যমেই দৃশ্যমান হতেন তিনি। অদৃশ্য থেকেই দেশের শক্রুদের উপর খতম করতেন। আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয়তা হয়েছিল অনিল কাপূর ও শ্রীদেবী অভিনীত হিন্দি ছবি ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’। এবার বিভাগীয় কাজকর্ম সংক্রান্ত গোপন খবর সংগ্রহ করার জন্য তেমনই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করল রেল। ওয়েবসাইটটির নাম সেফটি ইনফরমেশন সিস্টেম। এই ওয়েবসাইটে পরিচয় গোপন রেখে রেলের ক্রুটি-বিচ্যুতি ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত যাবতীয় খবর দিতে পারবেন কর্মীরাই। ওয়েবসাইটে আসা খবরাখবরে নজর রাখবেন রেলের সেফটি বিভাগের কর্তারা।

[নজরে পড়ার আগেই দেশে ছেড়ে চম্পট মোদির, বাজেয়াপ্ত ৫১০০ কোটির সম্পত্তি]

রেলের পরিষেবা নিয়ে অভিযোগের শেষ নেই। যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়েও রেলকর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগও ওঠে। তাই এবার কর্মীদের উপরে গোপনে নজরদারি চালানোর ব্যবস্থা করল রেল। এক্ষেত্রে ভরসা কর্মীরাই। রেলকর্মীদের জন্য সেফটি ইনরফরমেশন সিস্টেম নামে একটি ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে। এই ওয়েবসাইটে যাত্রীর নিরাপত্তা সংক্রান্ত ত্রুটি-বিচ্যুতির দিকগুলি সেফটি বিভাগের নজরে আনতে পারবেন রেলকর্মীরাই। চাইলে নিজেদের পরিচয় গোপনও রাখতে পারবেন তাঁরা। রেল সূত্রে খবর, সেফটি ইনরফরমেশন সিস্টেম নামক ওয়েবসাইটে হোমপেজটি খুললেই একটি সেফটি লিঙ্ক পাবেন রেলকর্মীরা। সেই লিঙ্কে ক্লিক করলেই অভিযোগকারীর কাছে জানতে চাওয়া হবে, তিনি নিজের পরিচয় গোপন রাখতে চান কিনা। এরপরই নিজের অভিযোগটি বা খবরটি ওয়েবসাইটে লোড করে দিতে পারবেন অভিযোগকারীরা। সেই খবর চলে যাবে রেলের সেফটি বিভাগের কর্তাদের কাছে। অভিযোগে গুরুত্ব খতিয়ে দেখার পর, সেটি সংশ্লিষ্ট বিভাগের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। কতদিনের মধ্যে পদক্ষেপ করতে হবে, তাও জানিয়ে দেবেন সেফটি বিভাগের কর্তারা।

[সংরক্ষিত কামরায় সামনে আর থাকবে না যাত্রীদের তালিকা!]

ইদানীং রেলে প্রায়শই দুর্ঘটনা ঘটছে। কিন্তু, তদন্তে নেমে অনেক তথ্য জানতে পারছেন না তদন্তকারীরা। রেল কর্তাদের দাবি, বেশির ক্ষেত্রেই দেখা যায়, রেলকর্মীরা বিষয়টি জানেন। কিন্তু, ভয়ের তদন্তকারীদের জানাতে চাইছেন না। তাই পরিচয় গোপন রেখে কর্মীরা যাতে রেলকে সাহায্য করতে পারবেন, সেজন্যই এই ওয়েবসাইটটি খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অল্প কয়েকদিনে এই সেফটি ইনফরমেশন সিস্টেম ওয়েবসাইটটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। প্রায় ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রেই নাম গোপন রেখেই অভিযোগ জমা পড়েছে। বছর ছয়েক আগে সেফটি ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম চালু করেছিল রেল। সেখানে দুর্ঘটনার ২ ঘণ্টার মধ্যে যাবতীয় তথ্য আপলোড করা যেত। সব জোনের সেফটি আধিকারিকরা সেই তথ্য দেখতে পেতেন। নয়া ওয়েবসাইটটি তারই আধুনিক সংস্করণ। এখানে শুধু মাত্র আধিকারিকরাই নন, সাধারণ রেলকর্মীরাও অভিযোগ জানাতে পারবেন।

[প্রেমিকা নেই তো মহিলা পুলিশই সই, প্রপোজ করে বিপাকে যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement