BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার সময় বেঁচে উঠল ‘মৃত’ শিশু, ছড়াল চাঞ্চল্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 3, 2017 1:17 pm|    Updated: July 3, 2017 1:17 pm

 Infant declared dead by Warangal hospital found alive before funeral

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা দেশে এখন আধুনিকতার ছোঁয়া। এমনকী মাঝেমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিভিন্ন বক্তব্যেও উঠে আসে ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’-র কথা। কিন্তু শিক্ষা থেকে শুরু করে চিকিৎসা- প্রতিটি ক্ষেত্রেই পরিষেবা যে এখনও অনুন্নত, বেহাল সম্প্রতি একটি ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে সেটা প্রমাণ করে দিল। এবার তেলেঙ্গানার একটি হাসপাতালের বিরুদ্ধে উঠল চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ।

[বঙ্গোপসাগরের তীরে অত্যন্ত গোপনে কী কর্মযজ্ঞ চালাচ্ছেন ভারতীয় বিজ্ঞানীরা?]

জানা গিয়েছে, গত রবিবার জীবন্ত এক শিশুকে ‘মৃত’ বলে জানায় ওরাঙ্গেলের মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়াল হাসপাতালের চিকিৎসকরা। এরপরই তার দেহটিকে তুলে দেয় পরিবারের হাতে। কিন্তু অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার সময় শিশুটির বাড়ির লোক দেখতে পায় সে বেঁচে আছে। নড়াচড়া করছে শিশুটি। এরপরেই তড়িঘড়ি তাকে অন্য একটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। বেশ কয়েকঘণ্টা সেখানে শিশুটির শুশ্রুষাও হয়। শেষপর্যন্ত অবশ্য তাকে আর বাঁচানো সম্ভব হয়নি। এই ঘটনার পরেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ এনেছে শিশুটির বাড়ির লোক। এলাকাতেও ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য। যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তারা জানিয়েছে, ইসিজি মেশিন ঠিকমতো কাজ না করার কারণেই এই ভুল হয়েছে।

[জিএসটি নিয়ে কি এই ভুলগুলিই বোঝাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা?]

এর আগে গত মাসেও একই ঘটনার সাক্ষী থেকে ছিল রাজধানী দিল্লি। সফদরজং হাসপাতালে জন্ম নেওয়া শিশুকে মৃত বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। এমনকী একটি প্যাকেটে শিশুটির দেহটিকে মুড়ে পরিবারের হাতেও তুলে দেয় তারা। কিন্তু অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ার সময় পরিবারের একজন শিশুটিকে নড়া চড়া করতে দেখেন। তারপরেই তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পরেই সফদরজং হাসপাতালের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগও তোলে ওই শিশুটির পরিবার। ফের একবার এই ঘটনা দেশের স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল।

[নারদ-কাণ্ডে সিবিআই দপ্তরে হাজির সাংসদ সুলতান আহমেদ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে