BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজস্থানে সরকার বাঁচাতে আসরে প্রিয়াঙ্কা! দলে থাকতে একাধিক ‘শর্ত’ দিলেন পাইলট

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 13, 2020 4:57 pm|    Updated: July 13, 2020 4:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপাতত রাজস্থানের কংগ্রেস সরকারের উপর থেকে সংকট কাটল। বহু টানাপড়েনের পর ‘১০৭ জন’ বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রী গেহলটের ডাকা বৈঠকে উপস্থিত হয়েছেন। অন্তত এমনটাই দাবি মুখ্যমন্ত্রীর মিডিয়া উপদেষ্টার। এদিকে সংকট বুঝে দেরিতে হলে আসরে নেমেছেন গান্ধী পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য প্রিয়াঙ্কা গান্ধী (Priyanka Gandhi)। সূত্রের খবর, রবিবার রাতে বেশ কিছুক্ষণ শচীন পাইলটের (Sachin Pilot) সঙ্গে কথা বলেন প্রিয়াঙ্কা। প্রায় দু’দিন পর কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছেন পাইলটও। দলে ফেরার জন্য শীর্ষ নেতৃত্বকে তিনটি শর্ত দিয়েছেন রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রী।

এদিন সকাল থেকেই মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের (Ashok Gehlot) ডাকা বৈঠকে কতজন বিধায়ক হাজির হন, সেটা নিয়ে আগ্রহ ছিল রাজনৈতিক মহলে। কারণ, আগের দিন রাতেই পাইলট দাবি করেছিলেন অন্তত ৩০ জন বিধায়কের সমর্থন তাঁর সঙ্গে আছে। পালটা কংগ্রেস দাবি করেছিল, মুখ্যমন্ত্রী গেহলটের সঙ্গে আছেন ১০৯ জন বিধায়ক। এদিন সকাল সাড়ে ১০ টায় সব বিধায়ককে নিজের বাড়িতে তলব করেন মুখ্যমন্ত্রী। হুমকি দেওয়া হয় বৈঠকে না এলে তাঁদের বিধায়ক পদ বাতিল করে দেওয়া হবে। কিন্তু সাড়ে ১০টা পর্যন্ত দেখা যায় মাত্র ৯০ জন বিধায়ক হাজির হয়েছেন। বাধ্য হয়ে বৈঠক পিছিয়ে দেয় কংগ্রেস নেতৃত্ব। পিছাতে পিছাতে সেই বৈঠক শুরু হয় দুপুর একটার পর। কংগ্রেস দাবি করে, ১০৭ জন বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে বৈঠকে এসেছেন। পাইলটের সঙ্গে আছেন আর মাত্র জনা দ’শেক বিধায়ক। বাকিরাও গেহলটের প্রতি আনুগত্য দেখাবেন। এদিনের বৈঠকে সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী এবং গেহলটের প্রতি আনুগত্য দেখিয়ে একটি প্রস্তাবও পাশ করানো হয় বিধায়কদের দিয়ে। বৈঠক শেষে এই ‘১০৭ জন’ বিধায়ককে জয়পুরের কাছে একটি রিসর্টে সরিয়ে নেন গেহলট।অঙ্ক বলছে, সত্যিই যদি ১০৭ জন বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রীর শিবিরে থেকে থাকেন, তাহলে এই মুহূর্তে সরকারের উপর কোনও সংকট থাকার কথা নয়। কারণ, রাজস্থান বিধানসভার ম্যাজিক ফিগার ১০১।

[আরও পড়ুন: ধোঁয়াশা বাড়ছে রাজস্থানে! গেহলট ঘনিষ্ঠ একাধিক নেতার ঠিকানায় আয়কর হানা]

এবার আসা যাক পাইলটের কথায়। সূত্রের খবর, টানা দু’দিন কারও ফোন না ধরার পর সোমবার রাজস্থান প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি দলে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন। কিন্তু সেজন্য তিনটি বড়সড় শর্ত রেখেছেন তিনি। এক, তাঁর চার অনুগামীকে মন্ত্রিত্ব দিতে হবে। দুই, মুখ্যমন্ত্রীর নিজের হাতে থাকা অর্থ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক দিতে হবে তাঁর শিবিরকে। এবং তিন, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পদে তাঁকেই বহাল রাখতে হবে। সূত্রের খবর, কংগ্রেসের তরফে পাইলটের সঙ্গে কথা বলেছেন খোদ প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। প্রিয়াঙ্কা রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সশরীরে দেখা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু শর্ত না মানা অবধি তিনি দেখা করতে রাজি হননি। এখন যা পরিস্থিতি তাতে গেহলট এই শর্তগুলি মেনে নিলে পাইলট আবার কংগ্রেসে ফিরবেন। নাহলে বিজেপিতে যোগ বা নিজের দল তৈরির কথা ভাবতে পারেন তিনি। যদিও, প্রকাশ্যে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা ইতিমধ্যেই উড়িয়ে দিয়েছেন তরুণ গুর্জর নেতা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement