১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শুধু জয় নয়, উপরাষ্ট্রপতি ভোটে ব্যবধানেও রেকর্ড ধনকড়ের, নেপথ্যের কারণ নিয়ে চিন্তায় বিরোধীরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 7, 2022 11:00 am|    Updated: August 7, 2022 11:00 am

Jagdeep Dhankhar secured 72.8% votes of the total 725 valid votes | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে হারলেও বিরোধীদের সান্ত্বনা ছিল যশবন্ত সিনহার হারের ব্যবধান ছিল আগেরবারের থেকে অনেকটাই কম। এমনকী দ্রৌপদী মুর্মুর (Draupadi Murmu) জয়ের ব্যবধান ইউপিএ আমলের দুই রাষ্ট্রপতির থেকেও কম ছিল। সেটা ভালরকম স্বস্তির জায়গা ছিল বিরোধীদের জন্য। কিন্তু উপরাষ্ট্রপতি ভোটে সম্পূর্ণ উলটো ছবি চোখে পড়ল। বিজেপির (BJP) প্রার্থী জগদীপ ধনকড় শুধু জিতলেন না, রীতিমতো রেকর্ড ব্যবধানে জিতলেন।

উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে সংসদের দুই কক্ষের মোট ৭২৫ জন সদস্য গোপন ব্যালটে ভোট দিয়েছেন। এর মধ্যে জগদীপ ধনকড়ের পক্ষে গিয়েছে ৫২৮ ভোট। অন্যদিকে মার্গারেট আলভা (Margaret Alva) পেয়েছেন মাত্র ১৮২ ভোট। দু’জনের ভোটের ব্যবধান ৩৪৬। সব মিলিয়ে ৭২.৮ শতাংশ ভোট পেয়েছেন ধনকড়। বিরোধী প্রার্থী মার্গারেট আলভা পেয়েছেন ২৬ শতাংশ ভোট। আগের উপরাষ্ট্রপতি ভোটে তৎকালীন বিরোধী প্রার্থী গোপালকৃষ্ণ গান্ধী পেয়েছিলেন ৩২ শতাংশ ভোট। সে তুলনায় এবার বিরোধী শিবিরের প্রাপ্ত ভোট অনেকটাই কমেছে। আর আগের উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নায়ডুর থেকে ধনকড়ের ভোট বেড়েছে ২ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: ফের বঞ্চনা! মমতার বদলে দিল্লিতে মোদির বৈঠকে বক্তব্য রাখলেন বাংলার অস্থায়ী রাজ্যপাল]

বস্তুত, ধনকড়ের এই বিরাট জয়ের ব্যবধান ৬ বারের রেকর্ড। ১৯৯৭ সালের পর এত বড় ব্যবধানে আর কেউ জেতেননি। তবে উপরাষ্ট্রপতি ভোটে জয়ের রেকর্ড এখনও রয়েছে কেআর নারায়ণনের দখলে। সেটা ১৯৯২ সালে। নজিরবিহীন সেই নির্বাচনে ৭০১টি ভোটের মধ্যে ৭০০টিই পান কেআর নারায়ণন।

[আরও পড়ুন: বিরোধীদের মধ্যে সমন্বয় নিয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ, দূরত্ব বজায় রাখার ইঙ্গিত তৃণমূলের]

ধনকড়ের (Jagdeep Dhankar) এই বিরাট জয়ে স্বভাবতই খুশি বিজেপি শিবির। বিরোধীদের আশা ছিল, সকলে একত্রিত হলে অন্তত বিজেপি প্রার্থীকে খানিকটা লড়াই দেওয়া যেত। কিন্তু সেটা সম্ভব হল না। এনডিএ’র অংশ না হওয়া সত্ত্বেও বহু দল ধনকড়কে ভোট দিয়েছে। এনডিএ’র (NDA) সাংসদ সংখ্যা যেখানে ৪৪১, সেখানে ধনকড় পেয়েছেন ৫২৮ ভোট। অন্যদিকে বিরোধী শিবিরের অন্যতম দল তৃণমূল (TMC) ভোটই দেয়নি। কয়েকটি দল আলভাকে সমর্থন করলেও তাঁদের সব সাংসদ বিরোধীদের ভোট দিয়েছেন কিনা সেটা নিশ্চিত নয়। এসবই জাতীয় রাজনীতির নিরিখে বড়সড় মাথাব্যাথার কারণ হতে পারে বিরোধী শিবিরের ভোট ম্যানেজারদের জন্য। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে