BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মালিকের কাছে উপরি পাওনা না পেয়ে ওলা চালক কী করল যাত্রীর সঙ্গে?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 20, 2017 11:58 am|    Updated: July 20, 2017 11:58 am

Jilted over incentive Ola cabbie kidnapped doctor

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাস্তব কখন যে সিনেমার কাহিনিকেও ছাপিয়ে যায়, কেউ বলতে পারে না। ঠিক এমনটাই সম্প্রতি ঘটে গিয়েছে রাজধানী দিল্লিতে। যেখানে গাড়িমালিকের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে নিরীহ যাত্রীকেই অপহরণ করে বসল ওলা চালক। আর মুক্তিপণ হিসেবে চাইল পাঁচ কোটি টাকা।

[শৌচালয়ের প্যানে মাথা তুলে দাঁড়াল আস্ত পাইথন, তারপর…]

কাহিনির সূত্রপাত হয় জুলাই মাসের ৬ তারিখে। সেদিনই দক্ষিণ দিল্লিতে যাওয়ার জন্য প্রীত বিহার থেকে ওলা ক্যাব বুক করেন মেট্রো হাসপাতালের ডাক্তার শ্রীকান্ত গওর। কিন্তু গন্তব্যে পৌঁছনোর বদলে তাঁকে অপহরণ করে নেয় ওলা চালক সুশীল ও তাঁর সঙ্গীরা। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, এই কাজে সুশীলকে সঙ্গ দিয়েছে তাঁর ভাই অনুজও। প্রথমে জানা যায়, মীরাটের দওরালা গ্রামে গা-ঢাকা দিয়েছে অপহরণকারীরা। মীরাট পুলিশের সাহায্যে সেখানে যৌথ অপারেশন চালায় দিল্লি পুলিশ। কিন্তু কোনওভাবে তারা পালাতে সক্ষম হয়। গত বুধবার ফের জানা যায়, পারতাপুর গ্রামের কাছে ডাক্তারকে নিয়ে লুকিয়ে রয়েছে দুষ্কৃতীরা। এবার আর কোনও চান্স নেয়নি পুলিশ। বিশাল বাহিনী নিয়ে উদ্ধার করা হয় শ্রীকান্ত গওরকে। চার জনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। কিন্তু অভিযুক্ত দুই ভাই পালাতে সক্ষম হয়েছে।

[নতুন ২০ টাকার নোট সম্পর্কে এই ৭টি চাঞ্চল্যকর তথ্য জানেন কি?]

ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গিয়েছে, দুই ভাই মিলেই এই অপহরণের ছক কষেছিল। আর এ কাজ তারা করেছে প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য। সুশীলের আগে অনুজ ওলা চালক হিসেবে কাজ করত। যে গাড়ি সংস্থার মাধ্যমে ওলা ক্যাব সে চালাত, সেই সংস্থা নাকি তাঁর উপরি পাওনা কিছুই দেয়নি। সেই কারণেই এই অপহরণ করে পাঁচ কোটি টাকা আদায় করার উদ্দেশ্য ছিল তাদের। কিছুদিন আগেই ওলা চালানোর অনুমতি পেয়েছিল সুশীল। ভুয়ো কাগজপত্র দিয়ে এই অনুমতি আদায় করেছিল সে। আর ঘটনাচক্রে শ্রীকান্তই ছিল তার প্রথম যাত্রী। যাকে বুধবারই এই অপহরণ চক্র থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

[ফের হিন্দির বিরুদ্ধে সরব কর্নাটক, মেট্রো স্টেশন থেকে মোছা হল নাম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে