২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জেজেপিতে বড়সড় ভাঙন, এবার সংকটে হরিয়ানার বিজেপি সরকার!

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 26, 2019 2:31 pm|    Updated: December 26, 2019 2:31 pm

JJP MLA and senior leader Ram Kumar Gautam resigns from party

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ডের পর এবার হরিয়ানা! বিজেপি নেতৃত্বের মাথাব্যাথা বাড়াচ্ছে দুষ্মন্ত চৌটালার দল জেজেপির ভাঙন। বুধবার শীর্ষ নেতাদের উপর অসন্তোষ প্রকাশ করে দল ছেড়েছেন জননায়ক জনতা পার্টির (Jannayak Janata Party) বর্ষীয়ান নেতা তথা বিধায়ক রাম কুমার গৌতম (Ram Kumar Gautam)। তাঁর অভিযোগ, দলের শীর্ষ নেতৃত্ব কারও কথা শুনছে না। বিধায়কদের উপযুক্ত সম্মান দেওয়া হচ্ছে না। গৌতমের দাবি, জননায়ক জনতা পার্টির সব বিধায়কই অসন্তুষ্ট। একে একে তাঁদের অনেকেই দল ছাড়বেন।


হরিয়ানায় আপাতত জেজেপির সমর্থনে সরকারে আছে বিজেপি। মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টারের (Manohar Lal Khattar) গদিতে টিকে থাকা নির্ভর করছে জেজেপির উপর। সেই জেজেপিতেই কিনা ভাঙন। যে রাম কুমার গৌতম দল ছেড়েছেন, জেজেপিতে তাঁর প্রভাব কেউ অস্বীকার করতে পারে না। ৭৩ বছর বয়সী রাম দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি ছিলেন। দলের একাধিক বিধায়ক তাঁর অনুগামী হিসেবে পরিচিত। হরিয়ানায় বিজেপির সঙ্গে জোট করা নিয়ে শুরু থেকেই অসন্তুষ্ট ছিলেন রাম। ক্ষোভ আরও বাড়ে তাঁকে মন্ত্রিত্ব না দেওয়ায়। রাম কুমারের অভিযোগ, বিজেপির সঙ্গে জোটের শর্ত হিসেবে ১১টি মন্ত্রিত্ব পেয়েছে জেজেপি। অথচ, সবগুলিই নিজের পরিবারের হাতে রেখে দিয়েছেন দুষ্মন্ত। বিক্ষুব্ধ ওই বিধায়কের দাবি, দলের সব বিধায়কই বিজেপির সঙ্গে জোট করায় অসন্তুষ্ট। কয়েকজন মন্ত্রিত্ব না পেয়ে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। বিজেপির সঙ্গে জোটের সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়, দুষ্মন্ত একবারও তাঁদের পরামর্শ নেননি বলেও দাবি রাম কুমার গৌতমের।

[আরও পড়ুন: ‘CAA নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝানো হচ্ছে’, আন্দোলন নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেশের সেনাপ্রধানের]

বর্ষীয়ান এই বিধায়কের দল ছাড়ায় জেজেপি শিবিরে বড়সড় ভাঙনের ইঙ্গিত মিলেছে। এমনিতেও জেজেপির কয়েকজন বিধায়ক বিক্ষুব্ধ কংগ্রেস নেতা। এবং তাঁদের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভুপিন্দর সিং হুডার ঘনিষ্ট বলে মনে করা হয়। রাম কুমার দল ছাড়ার পর তাঁদেরও দল ছাড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

Khattar-Dusyant

[আরও পড়ুন: ‘NPR করতে এলে ভুল তথ্য দিন’, কেন্দ্রের পরিকল্পনা রুখতে কড়া বার্তা অরুন্ধতী রায়ের]

উপমুখ্যমন্ত্রী তথা জেজেপি নেতা দুষ্মন্ত চৌটালা অবশ্য, গৌতমের দলত্যাগকে আমল দিচ্ছেন না। তিনি বলছেন, “সংবাদমাধ্যম থেকে আমি এই দলত্যাগের কথা শুনেছি। কেন উনি দল ছাড়লেন তা ইস্তফাপত্র দেখলেই বুঝতে পারব। তারপর তদন্ত করে দেখা হবে।” মাস দুয়েক আগেই গঠিত হয়েছে হরিয়ানা সরকার। ৯০ আসনের হরিয়ানা বিধানসভায় বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ৪০। জেজেপির বিধায়ক সংখ্যা ১০। একজন বিধায়ক দল ছাড়ায় জেজেপির শক্তি কমে হল ৯।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে