BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘পদ্মাবতী’কে নিষিদ্ধ করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের আরজি কর্ণি সেনার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 29, 2017 11:24 am|    Updated: September 21, 2019 5:16 pm

Karni Sena Request PM Modi to Intervene on Padmavati Row

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছবি নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি এ দেশে। তবে ‘পদ্মাবতী’ বিতর্ককে অন্য মাত্রায় নিয়ে গিয়েছে কর্ণি সেনা। এবার ছবি নিষিদ্ধ করতে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের দাবি জানাল রাজপুত সংগঠনটি। একইসঙ্গে গোটা ভারতে ছবিটিকে নিষিদ্ধ করার ডাক দেওয়া হল।

মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সামনে রাজপুত কর্ণি সেনার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য লোকেন্দ্র সিং কালভি বলেন, ‘ছ’টি রাজ্য ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে ছবিটি সে রাজ্যে মুক্তি পাবে না। আমরা এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। মুক্তির নতুন তারিখ ঘোষণার আগে আমরা চাই অন্তত ২০টি রাজ্য এই ছবিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করুক। সারা দেশে ছবি নিষিদ্ধ করার অধিকার সরকারের আছে। সিনেম্যাটোগ্রাফি অ্যাক্ট অনুযায়ী সেন্সর বোর্ডের শংসপত্র দেওয়ার আগে বা পরে ছবিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার অধিকার সরকারের রয়েছে। আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করছি এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে।’

[‘পদ্মাবতী’র কোপ বিজেপির অন্দরে, দলীয় মুখপাত্রের পদ ছাড়লেন আমু]

প্রসঙ্গত, ছবি নিয়ে পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালি ও নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনকে একের পর এক হুমকির সম্মুখীন হত হচ্ছে। ফতোয়া জারি করা ব্যক্তিদের তালিকায় অধিকাংশই বিজেপির নেতা। মঙ্গলবারই সুপ্রিম কোর্ট বিদেশে ছবির মুক্তি নিষিদ্ধ করার আরজি খারিজ করে দেয়। আর ছবির বিরুদ্ধে জনপ্রতিনিধিদের আলটপকা মন্তব্যের তীব্র ভর্ৎসনা করে জানিয়ে দেয়, গোটা বিষয়টির দায়িত্বে সিবিএফসি রয়েছে। তারা ছাড়া এ বিষয়ে মন্তব্য করার অধিকার কারও নেই। এই গোটা বিতর্কে অবশ্য প্রত্যক্ষ-পরোক্ষভাবে একবারও মুখ খোলেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে কর্ণি সেনার সৌজন্যে এবার তাঁর নাম জড়িয়েই গেল বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

[‘পদ্মাবতী’ নিয়ে নেতাদের এত কথা কেন, কেন্দ্রকে তোপ সুপ্রিম কোর্টের]

এদিকে বিতর্কের আঁচ পৌঁছেছে সংসদ ভবনেও। মঙ্গলবার ছবি প্রসঙ্গে সঞ্জয় লীলা বনশালির বক্তব্য জানতে চেয়েছে তথ্য-প্রযুক্তি সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটি। বৃহস্পতিবার সংসদে তাঁকে হাজির হতে বলেছেন কমিটির চেয়ারম্যান অনুরাগ ঠাকুর। উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে সেন্সর প্রধান প্রসূন জোশী সহ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের আধিকারিকদেরও। তবে বিতর্ক যতই থাক ‘পদ্মাবতী’র জনপ্রিয়তা এতটুকু কমেনি। ইতিমধ্যেই ছবি গান বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে। যে উত্তরপ্রদেশে বিশৃঙ্খলার অজুহাতে ছবিকে নিষিদ্ধ করার কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সেখানেই ‘ঘুমর’-এর তালে মঞ্চ মাতাতে দেখা গেল মুলায়ম সিং যাদবের পুত্রবধূ অপর্ণাকে।

[‘পদ্মাবতী’র জন্য ১৫ মিনিটের ব্ল্যাকআউটে শামিল টলিপাড়াও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে