১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ব্যর্থ করুণ আকুতি, বৃদ্ধা মায়ের কান্নাতেও মন গলল না জঙ্গিদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 22, 2018 12:25 pm|    Updated: September 22, 2018 12:25 pm

Kashmir cop's mother pleased terrorist release her son

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চোখের সামনে ছেলেকে তুলে নিয়ে গিয়েছে জঙ্গিরা৷ মন দিয়েছিল বিপদের হাতছানি৷ প্রশ্ন জেগেছিল জলজ্যান্ত ছেলেকে অপহরণের পর আর সে বাড়ি ফিরবে তো? মায়ের মন বলে কথা৷ আশা-আশঙ্কার দোলাচলে নিজেকে শান্ত রাখতে পারেননি৷ ভিডিওবার্তা প্রকাশ করে জঙ্গিদের জানানোর চেষ্টা করেন মুক্তি দিলে, সেনার চাকরি থেকে বরখাস্ত করবে ছেলে৷ কিন্তু তাতেও মন গলল না সন্ত্রাসবাদীদের৷ ছেলে নয়, বাড়ি ফিরল তাঁর কফিনবন্দি দেহ৷

[পাকিস্তানের মুখোশ খুলল আমেরিকা, কড়া পদক্ষেপের পথে ট্রাম্প]

লাগাতার জঙ্গি হামলার জেরে উত্তপ্ত উপত্যকা৷ কখনও জঙ্গির হুমকি বার্তা আবার কখনও গোলাগুলিতে অশান্ত ভূস্বর্গ৷ দিনদুয়েক আগেই হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গিগোষ্ঠীর তরফে ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে৷ প্রত্যেক সেনা জওয়ানদের উদ্দেশ্যে ওই ভিডিও বার্তায় তারা পদত্যাগ করার বার্তা দেয়৷ জঙ্গিদের কথা না শুনলে জবাব বুলেটে দেওয়া হবে বলেও জানায় জঙ্গিরা৷ তার ঠিক আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যেই আবারও অশান্তির বাতাবরণ জম্মু-কাশ্মীরে৷ শুক্রবার সকালেও অশান্তির হাত থেকে রেহাই মেলেনি ভূস্বর্গের৷ ওইদিন সোপিয়ানের কাপরান গ্রামে বাড়ি থেকে অপহরণ করা হয় তিন জওয়ানকে৷ অপহৃতদের মধ্যে ছিলেন কনস্টেবল নিসার আহমেদ৷ চোখের সামনে ছেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, তা মানতে পারেননি নিসারের মা৷ অপহরণের কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনিও একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেন৷ ছেলেকে ফেরত দেওয়ার জন্য কাকুতি মিনতি করেন ওই বৃদ্ধা৷ ছেলে বাড়ি ফিরে আসলে, চাকরি ছেড়ে দেবেও জানান তিনি৷ মর্মস্পর্শী ভিডিও বার্তাতেও কোনও লাভ হয়নি৷ বেশ কয়েকঘণ্টা পর একে একে তিন জওয়ানের দেহ উদ্ধার হয়৷ প্রত্যেকের দেহেই মেলে গুলির চিহ্ন৷ পরিবারের একমাত্র রুটিরোজগারী ছিলেন বছর চুয়াল্লিশের নিসার আহমেদ৷ দুই সন্তানের বাবা নিসারের মৃত্যুতে চোখের জল বাঁধ মানছে না তাঁর স্ত্রীর৷ সত্তরোর্ধ্ব শ্বশুর-শাশুড়ি ও দুই সন্তানকে নিয়ে পাঁচজনের সংসার চালাবেন কীভাবে সেই চিন্তাই এখন রাতের ঘুম কেড়েছে তাঁর৷

[কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ দিবস পালনের নির্দেশ UGC-র]

নিসার-সহ আরও তিন জওয়ানের মৃত্যুর ঘটনা আশঙ্কা বাড়াচ্ছে অন্যান্য জওয়ানদের৷ এই ঘটনার পরই আরও ছ’জন পুলিশকর্মী পদত্যাগ করেন৷ যদিও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এই পদত্যাগের সত্যতা অস্বীকার করা হয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে বাতিল হয়ে গিয়েছে ভারত ও পাকিস্তান বৈঠকও৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে