১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ঋণ মকুবের দাবিতে ফের মুম্বইয়ের রাজপথে ২০ হাজার কৃষক

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 21, 2018 3:38 pm|    Updated: November 21, 2018 5:38 pm

kishan march in Maharashtra

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মহারাষ্ট্রে কৃষক বিক্ষোভ৷ ঋণ মকুবের দাবি জানিয়ে ফের রাজপথের দখল নিতে চলেছেন মুম্বইয়ের প্রান্তিক কৃষকরা৷ ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলে বাণিজ্যনগরীর বুকে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পা মেলাবেন অন্তত ২০ হাজার কৃষক৷ বুধবার সকাল ১০টা নাগাদ বুকে ব্যাজ ও হাতে ঝাণ্ডা নিয়ে মিছিল শুরু করলেন তাঁরা৷ থানে থেকে মুম্বই পর্যন্ত মোট ২১ কিলোমিটার পায়ে হেঁটে আগামী বৃহস্পতিবার আজাদ ময়দানে জনসভা করবেন অন্তত ২০ হাজার কৃষক৷

[বাংলাদেশি শরণার্থীদের নাগরিকত্ব নয়, সংসদীয় কমিটির বৈঠকে উঠল দাবি]

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, ঋণ মকুবের দাবি জানিয়ে দু’দিনের ঠাসা কর্মসূচি রয়েছে কৃষকদের৷ বুধবার সকাল ১০টায় থানে থেকে শুরু হওয়া পদযাত্রা বিকেল ৫টায় পৌঁছানোর কথা মুম্বইয়ের সোমাইয়া গ্রাউন্ডে৷ খোলা আকাশের নিচে রাত কাটিয়ে পরদিন আজাদ ময়দানের দিকে শুরু হবে পদযাত্রা৷ সেখানেই ঋণ মকুব-সহ একগুচ্ছে দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ ও জনসভার ডাক দেওয়া হয়েছে ‘লোক সংঘর্ষ মোর্চা’-র তরফে৷  

[উত্তরাখণ্ড পুরভোটেও ধাক্কা বিজেপির, অপ্রত্যাশিত ভাল ফল কংগ্রেসের]

এদিনের এই কর্মসূচি প্রসঙ্গে ‘লোক সংঘর্ষ মোর্চা’র সদস্য প্রতিভা শিন্ডে বলেন, ‘‘মহারাষ্ট্রজুড়ে কৃষকরা অনাহারে মরছে৷ ফসলের দাম না পেয়ে আত্মহত্যা করছে৷ কিন্তু, তাতেও সরকারের কানে জল ঢুকছে না৷ তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সরকার যখন আমাদের কাছে আসছে না, তখন আমরাই ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলে সরকারের দিকে ধেয়ে যাব৷’’ তাঁদের হুঁশিয়ারি, সরকার যদি আন্দোলনকারী ২০ হাজার কৃষকের ঋণ মকুব না করে, তাহলে এর পর ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে সরকারকে৷

[রাজধানীতে হামলার ছক, দুই জঙ্গির ছবি প্রকাশ দিল্লি পুলিশের]

চলতি বছর মার্চে নাসিক শহর থেকে পায়ে হেটে প্রায় ১৮০ কিমি দূরত্ব পেরিয়ে দেশের আর্থিক রাজধানী মুম্বই অভিযানে নামেন ৫০ হাজার কৃষক৷ কৃষকদের লং মার্চের বার্তা সংবাদমাধ্যমের হাত ধরে ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে৷ তুমুল সমালোচনায় মাথা কাটা যায় মারাঠা প্রশাসনের৷ পরে, বাধ্য হয়ে কৃষকদের দাবি-দাওয়া মেনে নিতে বাধ্য হন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ৷ অভিযোগ, নাসিকের কৃষকদের জন্য সরকারি সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হলেও বঞ্চিতই থেকে যান থানের কৃষকরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে