BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

তামিলনাড়ুতে ফের পুলিশের মারে যুবকের মৃত্যু! মেরে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পরিবারের

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 18, 2020 9:21 am|    Updated: September 18, 2020 9:23 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের পুলিশি অত্যাচারে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠল তামিলনাড়ুতে (Tamil nadu)। বৃহস্পতিবার ঝুলন্ত অবস্থায় তাঁর দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের অভিযোগ, ২০ বছরের ওই যুবকে পুলিশ (Police) বেধড়ক মারধর করে মেরে ফেলে। পরে দেহটি গাছে ঝুলিয়ে দিয়ে যায়।

মৃত যুবকের নাম কে রমেশ। অভিযোগ, কিছুদিন আগে তাঁর দাদা ইদ্যাখানি এক নাবালিকাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। নাবালিকার বাবা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ইদ্যাখানির দুই ভাই রমেশ ও নরেশ এবং তাঁদের মাকে থানায় আসতে বলে। কিন্তু কেউ থানায় যায়নি বলে অভিযোগ।

[আরও পড়ুন : কৃষি বিল ইস্যুতে NDA ছাড়ার পথে অকালিরা! মোদি বললেন, ‘কৃষকদের ভুল বোঝানো হচ্ছে’]

এরপরই বুধবার সন্ধেয় কয়েকজন পুলিশ কর্মী ইদ্যাখানির বাড়িতে আসেন। সেইসময় বাড়িতে নরেশ ও তাঁদের মা ছিল। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁদের থানায় নির্দেশ দিয়ে কর্মীরা চলে আসেন বলে জানায় পুলিশ। ফেরার পথে রাস্তায় রমেশের সঙ্গে তাঁদের দেখা হয়। অভিযোগ, সেই সময় রমেশের বাইক কেড়ে নিয়ে থানায় চলে যায়। পরের দিন সকালে গিয়ে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে বলে। এরপরই গাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় রমেশের দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের অভিযোগ, শুধু মোটরবাইক নয়, রমেশকেও থানায় তুলে নিয়ে গিয়েছিল পুলিশ। সেখানে মারতে মারতে তাঁকে মেরে ফেলে। পরে নিজেদের দো। ঢাকতে গাছে ঝুলিয়ে দিয়ে যায়। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়ে গ্রামবাসীরা। গাছ থেকে দেহ নামিয়ে ঘিরে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখায়। ছেলের মৃত্যুতে ২৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছে পরিবার। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে এলাকায় যায় পুলিশ সুপার।

[আরও পড়ুন : ‘শ্রীকৃষ্ণের অবতার’! জন্মদিনে মোদিকে প্রশস্তিতে ভরিয়ে টুইট তথাগত রায়ের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement