১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিদ্রোহে নয়া মোড়! বঙ্গ বিজেপির বিক্ষুব্ধ নেতাদের সঙ্গে দিল্লিতে বৈঠক লকেটের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: February 15, 2022 9:14 am|    Updated: February 15, 2022 9:14 am

Locket Chatterjee Meets Ritesh Tiwari in Delhi | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার: বঙ্গ বিজেপির (BJP) একের পর এক বিক্ষুব্ধ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করছেন দলের সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee)। শান্তনু ঠাকুরের পর এবার রীতেশ তিওয়ারি। যা নিয়ে ফের আলোড়ন বঙ্গ বিজেপিতে।

Locket Chatterjee

কদিন আগেই উত্তরাখণ্ডের (Uttarakhand) রুদ্রপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরকে সঙ্গে নিয়ে ভোট প্রচার করেছিলেন লকেট। পাশাপাশি বঙ্গ বিজেপির বিদ্রোহী শিবিরের মুখ শান্তনুর সঙ্গে রুদ্রপুরে বৈঠকও করেন তিনি। সূত্রের খবর, সেখানে বাংলায় দলের বর্তমান ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর হাতে পার্টির দুরবস্থার বিষয়টি আলোচনায় উঠেছিল। পাশাপাশি বিক্ষুব্ধ শিবিরের শান্তনু ঠাকুরকেই বা কেন উত্তরাখণ্ডে ভোট প্রচারে লকেট ডেকেছিলেন তা নিয়ে বঙ্গ বিজেপির অন্দরে জোর চর্চাও চলছিল। 

সোমবার দিল্লির বাড়িতে রাজ্য বিজেপির আরেক বিক্ষুব্ধ নেতা রীতেশ তিওয়ারির সঙ্গে বৈঠকের পর বিদ্রোহী শিবিরের প্রতি লকেটের সমর্থনের বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়েছে। আর এতে অস্বস্তিতে বঙ্গ বিজেপির সংগঠন সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী ও তাঁর টিম। লকেটের অবশ্য বক্তব্য, ‘‘একজন বিজেপি নেতা বিজেপি সাংসদের সঙ্গে দেখা করতেই পারেন। এতদিন ধরে ওদের সঙ্গে কাজ করছি। তাছাড়া, রাহুল সিনহা, রীতেশ তিওয়ারির সময়েই তো আমি বিজেপিতে যোগ দিয়েছি।’’

[আরও পড়ুন: ‘হিজাব পরোনি কেন?’, কাশ্মীরের উচ্চমাধ্যমিক টপারকে আক্রমণ মৌলবাদীদের, যোগ্য জবাব ছাত্রীর]

উল্লেখ্য, লকেটের সঙ্গে রীতেশের বৈঠক এমন দিনে হল, যেদিন রাজ্যে শিলিগুড়ি, আসানসোল, বিধাননগর ও চন্দননগরের পুরভোটে ধরাশয়ী হয়েছে বিজেপি। এবার উত্তরাখণ্ডের ভোটে দায়িত্ব থাকার জন্য নিজের কেন্দ্র হুগলির চন্দননগরে প্রচারে ছিলেন না লকেট। এদিন, চন্দননগরের পুরভোটে হতাশাজনক ফল হয়েছে বিজেপির। সেদিনই দিল্লিতে দলের বিক্ষুব্ধ শিবিরের নেতা রীতেশ তিওয়ারির সঙ্গে লকেটের বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

সূত্রের খবর, টিম অমিতাভ দল পরিচালনায় যে সম্পূর্ণ ব্যর্থ। যার প্রভাব কলকাতা পুরভোটে ও চার পুরসভার ভোটে পড়েছে। রাজ্য বিজেপিতে ক্ষোভ-বিক্ষোভ চরমে। সেসব বিষয়েও দু’জনের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। দলীয় সূত্রে খবর, লকেট চট্টোপাধ্যায়ও মনে করেন বঙ্গ বিজেপিতে আদি নেতাদের স্বীকৃতি দরকার। এই সময়ের নেতাদের কোনও জনভিত্তি নেই। লকেট বাংলার দলের পুরনো নেতাদের পক্ষেই রয়েছেন বলে মনে করছেন বিক্ষুব্ধ শিবিরের নেতারা। চার পুরসভার ভোটে বিপর্যয়ের জন্য অমিতাভ চক্রবর্তী ও তাঁর টিমের দিকে দলের মধ্যেই অভিযোগের আঙুল উঠেছে । রীতেশ তিওয়ারিও পুরভোটের ফলাফলের জন্য টিম অমিতাভকে কাঠগড়ায় তুলেছেন। সেই বিষয়েও এদিন আলোচনা হয়েছে বলে খবর।

[আরও পড়ুন: ভালবাসার দিনে কনের সাজে দেবলীনা, ফের বিয়ে করলেন অভিনেত্রী? ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে