Advertisement
Advertisement
Sharad Pawar

‘মোদির আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরেছে’, মহারাষ্ট্রে ৫০ শতাংশ আসনে জয়ের বার্তা পওয়ারের

'৪০০ পার তো এবার সরকার গঠন নিয়েও যথেষ্ট সন্ধিহান গেরুয়া শিবির', দাবি বিরোধীদের।

Lok Sabha Election 2024: PM Narendra Modi's confidence has wavered Sharad Pawar said MVA is winning 50 percent seats

ফাইল ছবি।

Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:May 20, 2024 9:25 am
  • Updated:May 21, 2024 1:29 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচন শুরুর আগে ৪০০ পারের বার্তা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। তবে নির্বাচন(Lok Sabha Election 2024) যত এগোচ্ছে ৪০০ পার তো এবার সরকার গঠন নিয়েও যথেষ্ট সন্ধিহান গেরুয়া শিবির, এমনটাই দাবি বিরোধীদের। এহেন পরিস্থিতির মাঝেই এবার বার্তা দিলেন এনসিপি(শরদ) প্রধান শরদ পওয়ার (Sharad Pawar)। তাঁর দাবি, আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরছে নরেন্দ্র মোদির। তাই মহারাষ্ট্রে বড় আসন পেতে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন তিনি। তবে তাতে বিশেষ লাভ হবে না মহারাষ্ট্রে ৫০ শতাংশের বেশি আসন পেতে চলেছেন এনসিপি(শরদ), কংগ্রেস ও শিবসেনার(উদ্ধব) মহাজোট।

সম্প্রতি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘টাইম অফ ইন্ডিয়া’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শরদ পওয়ার বলেন, “ভোটের আগে যে ৪০০ পারের দাবি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তুলেছিলেন তা বড় অদ্ভুত দাবি ছিল। আমি জানি না ঠিক কিসের ভিত্তিতে এমন দাবি করেছিলেন উনি। বিজেপি (BJP) এবার সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে বিজেপির আসন পাওয়ার সম্ভাবনা অত্যন্ত ক্ষীণ। সেখানে একটি আসনও বিজেপি জিতবে কিনা সন্দেহ। অন্যদিকে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশে বিজেপির অবস্থা অত্যন্ত খারাপ।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘ভোটদানের নয়া রেকর্ড গড়ুন’, পঞ্চম দফার ভোটে বিশেষ আর্জি মোদির]

একইসঙ্গে বলেন, “৪ দফা নির্বাচনের পর পরিস্থিতি যা তাতে মোদিকে হারানো কোনও গুরুগম্ভীর বিষয় নয়। মোদির আত্মবিশ্বাসও তলানিতে এসে ঠেকেছে। তাই মহারাষ্ট্রে ব্যাপকভাবে প্রচার শুরু করেছেন উনি। যদিও তাতে লাভ কিছু হবে না। এবার মহারাষ্ট্রে ৫০ শতাংশ আসন পেতে চলেছে মহাজোট।” এছাড়া নির্বাচনী প্রচারে মোদি যে ধরনের ভাষা প্রয়োগ করছেন তা প্রধানমন্ত্রীর আসনের গরিমা ক্ষুণ্ণ হচ্ছে বলে দাবি করেন পওয়ার।

Advertisement

[আরও পড়ুন: আশ্রম না ছাড়লে খুন করার হুমকি! জলপাইগুড়িতে রামকৃষ্ণ মিশনের ভবনে তাণ্ডব দুষ্কতীদের]

শুধু তাই নয়, এবার নির্বাচনী প্রচারে বার বার প্রধানমন্ত্রীকে পরিবারবাদের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গিয়েছে। সে প্রসঙ্গেও এদিন মুখ খোলেন শরদ পওয়ার। তিনি বলেন, “ডাক্তারের ছেলে যদি ডাক্তার হতে পারেন তাহলে রাজনীতিবিদের সন্তানের রাজনীতিতে নামতে আপত্তি কোথায়? রাজনীতিবিদের সন্তান রাজনীতিতে পা রেখে সফল হবেন কী অসফল তা নির্ভর করবে তাঁর নিজের কর্মদক্ষতার উপর। মা-বাবার পদচিহ্ন অনুসরণ করা কোনও অপরাধ নয়।”

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ