BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মধ্যপ্রদেশে ‘লাভ জেহাদ’ রুখতে বাড়ানো হচ্ছে শাস্তির মেয়াদ, হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 25, 2020 10:35 pm|    Updated: November 25, 2020 10:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘লাভ জেহাদ’ (Love Jihad) বিতর্কে সরগরম দেশ। এই পরিস্থিতিতে বুধবার মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (Shivraj Singh Chouhan) জানিয়ে দিলেন, তিনি রাজ্যে যে কোনও মূল্যে ‘লাভ জেহাদ’ হওয়া রুখবেন। এদিনই রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র একটি বৈঠক ডাকেন। সেই বৈঠকে স্থির করা হয়েছে প্রস্তাবিত আইনে ‘লাভ জেহাদ’-এর সাজার মেয়াদ পাঁচ বছর নয়, হবে দশ বছরের।

আজ রীতিমতো রণহুঙ্কারের ভঙ্গিতে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দেন, রাজ্যের মাটিতে ‘লাভ জেহাদ’ কোনও মূল্যেই হতে দেবেন না তিনি। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা এজন্য আইন আনছি। এটা দেশকে বিভাজন করার ষড়যন্ত্র। কোনও মূল্যেই এটা আমরা হতে দেব না।’’ আগেই রাজ্যের তরফে একটি বিল আনার কথা জানানো হয়েছিল। তবে তখন বলা হয়েছিল পাঁচ বছরের সাজার কথা। কিন্তু আজকের বৈঠকের পরে সেই মেয়াদই বাড়িয়ে দশ বছর করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন : ২৫ হাজার কোটি টাকার জমি কেলেঙ্কারিতে নাম জড়াল ফারুক আবদুল্লার]

এদিকে মঙ্গলবারই উত্তরপ্রদেশে বিয়ের জন্য ধর্মান্তকরণ নিষিদ্ধ করে নতুন অর্ডিন্যান্স জারি করা হয়েছে। তাতে আইন অমান্য করলে দশ বছর পর্যন্ত সাজার ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর আজই মধ্যপ্রদেশেও সাজার মেয়াদ বাড়ানোর প্রস্তাব গ্রহণ করা হল। প্রসঙ্গত, হরিয়ানার বল্লভগড়ে ধর্ম বদলে রাজি না হওয়ায় প্রকাশ্যে এক যুবতীকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ ওঠে এক যুবকের বিরুদ্ধে। তারপরই দেশজুড়ে লাভ জেহাদ নিয়ে শুরু হয় জোর বিতর্ক।

একের পর এক বিজেপি শাসিত রাজ্য লাভ জেহাদের বিরুদ্ধে আইন আনার কথা জানাচ্ছেন। হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টার দাবি করেছেন, লাভ জেহাদের বিষয়ে আইন আনার ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা করছে কেন্দ্রও। সম্প্রতি এলাহাবাদ হাই কোর্ট এক রায়ে জানিয়েছিল, স্রেফ বিয়ের জন্য ধর্মান্তকরণ গ্রহণযোগ্য নয়। 

[আরও পড়ুন : দিল্লি হিংসা আদপে ‘সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ’, অতিরিক্ত চার্জশিটে দাবি পুলিশের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement