২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এখনই অবসর নয়, করোনা আবহে বাড়ল সরকারি কর্মীদের কাজের মেয়াদ  

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 28, 2020 1:45 pm|    Updated: April 28, 2020 1:45 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুব্রত বিশ্বাস: করোনার মতো মহামারির আবহেও সরকারি কর্মচারীদের জন্য সুখবর।রাজ্য সরকারি ও আয়ত্বাধীন সংস্থার কর্মীদের অবসরের সময় তিন মাস বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্যপ্রদেশ সরকার।

[আরও পড়ুন: পালঘরের পর বুলন্দশহর, শিব মন্দিরে খুন ঘুমন্ত দুই সাধু]

সোমবার এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যেসব কর্মী ও আধিকারিকদের এপ্রিল মাসে অবসর নেওয়ার কথা তাঁদের বর্তমান পরিস্থিতিতে এমাসে অবসর গ্রহণ করতে দেওয়া হবে না। তাঁদের কর্মজীবন তিন মাস সম্প্রসারিত করা হচ্ছে। এজন্য আগামী জুলাই মাস পর্যন্ত তাঁরা বেতন পাবেন। তিন মাস তাঁদের কাজ করতে হবে। করোনা মোকাবিলায় বহু সরকারি কর্মী কাজে নিযুক্ত। স্বাস্থ্যকর্মীদের অনেকেই সংক্রমণের আশঙ্কায় কোয়ারেন্টাইনে। এই পরিস্থিতিতে ১৮৬ জন কর্মী ডাবল শিফটে কাজ করছেন। কর্মীদের রিপোর্ট নেগেটিভ ও কোয়ারেন্টাইনের সময় শেষ হলেই কর্মীদের কাজে যোগ দিতে বলেছে সরকার। তবে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রাজ্য ঘোষণা করলেও, বাড়তি কত টাকা এজন্য খরচ হবে তা অবশ্য জানানো হয়নি।

এদিকে, ভারতে ক্রমেই বাড়ছে করোনার দাপট। মঙ্গলবার সকালে, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের একটি টুইট করে জানিয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের করোনার বলি ৬২ জন, যে হার সাম্প্রতিককালের মধ্যে সর্বোচ্চ। আক্রান্ত হয়েছেন ১৫৪৩, যে সংখ্যাও খুব কম উদ্বেগজনক নয়। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৯৩৪। আক্রান্ত ২৯৪৩৫। দেশের করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবনতির এই নমুনা চিন্তা বাড়িয়ে তুলল কয়েক গুণ। COVID-19 ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে, তার বিরুদ্ধে সর্ব শক্তি দিয়ে লড়াইয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ভারত। দু দফায় দীর্ঘ চল্লিশ দিনের লকডাউনের পথে হেঁটেছে দেশ। প্রতিটি রাজ্য লকডাউনের মাধ্যমেই গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখে দেওয়ার মরিয়া চেষ্টা করেছে, এখনও করছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসার সুযোগও বেড়েছে। দেশের একাধিক হাসপাতাল, নার্সিংহোম এগিয়ে এসেছে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিতদের চিকিৎসায়। বিদেশ থেকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জাম এসেছে। মোট কথা, করোনা যুদ্ধে আরও শক্তিশালী হচ্ছে ভারত। কিন্তু তারপরও প্রত্যাশিত ফল হাতে আসছে না। বরং উদ্বেগ ঘনিয়ে উঠছে।

[আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ রোধকারী পিপিই কতটা সুরক্ষিত? জানাবে কৃত্রিম রক্তের পরীক্ষা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement