BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

দিল্লির বাজি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে বিতর্কিত মন্তব্য মেয়রের, ভাইরাল ভিডিও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 21, 2018 10:41 am|    Updated: January 21, 2018 10:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজধানী দিল্লির উপকণ্ঠে বাওয়ানা শিল্পাঞ্চলের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডকে কেন্দ্র করে বিতর্ক ছড়িয়েছে। বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন উত্তর দিল্লির মেয়র প্রীতি আগরওয়াল। একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ক্যামেরার সামনে আগুন লাগার কারণ ব্যাখ্যা করতে পুরসভার আধিকারিকদের নিষেধ করছেন মেয়র। বলছেন, ‘দুর্ঘটনাগ্রস্ত কারখানার লাইসেন্স আমাদের কাছে রয়েছে। তাই এই পরিস্থিতিতে আমাদের মুখ খোলা উচিত নয়।’ ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পরেই বিতর্ক ছড়ায়। অস্বস্তি এড়াতে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই বিবৃতি দিয়ে ভিডিওটিকে ভুয়ো বলে দাবি করেন মেয়র। জানান তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে কথা ছড়ানো হচ্ছে। এজন্য মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল তাঁর কাছে ক্ষমাও চাইবেন এমনটাই দাবি তোলেন প্রীতি আগরওয়াল।

[হজ অফিসের পর এবার পার্কের পাঁচিলে গেরুয়া রং, ফের বিতর্কে যোগী প্রশাসন]

ভিডিওতে উল্লেখিত বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দুর্ঘটনাস্থলটি যাতে সরেজমিনে তদন্ত হয় তা দেখার জন্য সহকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করছিলাম। সেই সময় আমি বলেছিলাম, এমন দুর্ভাগ্যজনক পরিস্থিতিতে আগুন লাগার কারণ নিয়ে আমাদের কিছু বলা উচিত নয়। তাছাড়া বাওয়ানা শিল্পাঞ্চলটি রাজ্যের অধীনে রয়েছে। দিল্লির সরকার সেখানে বাজি কারখানা তৈরির জন্য জমি দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার সন্ধ্যায় ভয়াবহ আগুন লাগে বাওয়ানা শিল্পাঞ্চলের বাজি কারখানার ইউনিটে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহতের সংখ্যা দুই। সন্ধ্যা নাগাদ গোটা শিল্পাঞ্চলে পর পর তিন জায়গায় আগুন লাগে। প্রথমে আগুন লাগে বিকেল চারটের আগে পরে। ঘটনাস্থল শিল্পাঞ্চলের এক নম্বর সেক্টরের কার্পেট তৈরির কারখানা। সাড়েসাতটা নাগাদ দ্বিতীয় আগুনটি লাগে পাঁচ নম্বর সেক্টরের বাজি কারখানার ইউনিটে। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তৃতীয়বারের মতো আগুন লাগে শিল্পাঞ্চলের তিন নম্বর সেক্টরের প্লাস্টিকের কারখানায়। আগুন লাগার খবর পেয়েই তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছন মেয়র প্রীতি আগরওয়াল। গিয়েই আধিকারিকদের উদ্দেশে উল্লেখিত মন্তব্যটি করেন। তারপরেই বিতর্ক ছড়ায়।

[ধর্ষণে অভিযুক্ত বেকসুর খালাস, মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা নির্যাতিতার]

বলাবাহুল্য, ইতিমধ্যেই মেয়র প্রীতির পাশে দাঁড়িয়েছেন দিল্লির বিজেপি প্রধান মনোজ তিওয়ারি। বলেছেন, ভিডিওটিতে মেয়রের বক্তব্য স্পষ্ট নয়। শুধু মাত্র এই কারখানা কথাটি বোঝা যাচ্ছে। এমন দুঃসময়ে বিজেপিকে দোষারোপ করার জন্যই জনগণ ভিডিওটিকে ভাইরাল করেছে।

[বিয়ের পরেও মহিলাদের জাতিগত পরিচয় বদলায় না, রায় সুপ্রিম কোর্টের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement