BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পুলিশের সামনেই খুনের অভিযুক্তকে পিটিয়ে মারল স্থানীয়রা, ভাইরাল মর্মান্তিক ঘটনার ভিডিও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 7, 2020 2:21 pm|    Updated: September 7, 2020 2:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) এক শিক্ষকদের খুনের অভিযোগ উঠেছিল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। আর সেই ক্ষোভ থেকেই আইন নিজের হাতে তুলে নিলেন স্থানীয়রা। গণপিটুনিতে মৃত্যু হল অভিযুক্তর। গোটা ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হয়েও অভিযুক্তকে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করতে পারেনি পুলিশ।

[আরও পড়ুন: মোদির গুজরাটকে অপমান! আহমেদাবাদকে ‘মিনি পাকিস্তান’ বলে বিপাকে সঞ্জয় রাউত]

সোমবার সকালে এমন মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) রাজ্যের কুশিনগরের একটি গ্রামে। জানা গিয়েছে, এদিন সকালেই স্থানীয় একটি স্কুলের শিক্ষককে গুলিবিদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছিল। অভিযোগ, বাবার বন্দুক থেকে গুলি করে শিক্ষককে খুন করেছে গোরক্ষপুরের ওই ব্যক্তিই। এমনকী বন্দুক হাতে বাড়ির ছাদে উঠে এরপর শূন্যেও গুলি চালায় সে। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এলাকার বাসিন্দারা। খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই ভয় পেয়ে যায় ওই ব্যক্তি। হাত তুলে আত্মসমর্পণ করে। কিন্তু ছাদ থেকে তাকে নামিয়ে পুলিশ ভ্যানে তুলতে গেলেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

অভিযুক্তকে টেনে এনে মারধর করতে শুরু করেন এলাকার বাসিন্দারা। বেত, লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারা হয় তাঁকে। করে লাথি, ঘুসিও। পুলিশ কর্মীরা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি। উত্তেজিত জনতাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হন তাঁরা। ফলে অসহায়ভাবে গণপিটুনিতেই মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ে ওই ব্যক্তি। এমনকী তাঁর নিথর দেহেও লাথি মারতে থাকে জনতা।

গোটা ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই ছড়ায় চাঞ্চল্য। পুলিশের উপস্থিতিতে কীভাবে এমন নির্মম ঘটনা ঘটল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় যোগীর রাজ্যের পুলিশের উপরই ফের আঙুল তুলছেন অনেকে।

[আরও পড়ুন: শিক্ষানীতিতে ন্যূনতম সরকারি হস্তক্ষেপের পক্ষে সওয়াল প্রধানমন্ত্রী মোদির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement