BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা সংক্রমিত স্থান হিসেবে চিহ্নিত হাসপাতাল, আতঙ্কে শিলংয়ে আত্মঘাতী যুবক

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 14, 2020 10:06 pm|    Updated: April 14, 2020 10:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিলংয়ের বেথানি হাসপাতাল সংক্রমিত স্থান হিসেবে চিহ্নিত। একথা জানার পরই মঙ্গলবার সকালে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী এক যুবক। মঙ্গলবার সকালেই ঘটল এমন মর্মান্তিক ঘটনা। কিন্তু তারপরে ও যা প্রকাশ্যে এল তাতেই হতাশ চিকিৎসকরা। বিকেলেই ওই মৃত যুবকের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট হাতে আসে চিকিৎসকদের।

করোনা সন্দেহে কয়েকদিন আগে বছর ২৬-এর যুবককে শিলংয়ের বেথানি হাসপাতালের আইসেলেশন ওয়ার্ডে আনা হয়। সেখানেই তাঁকে রেখে চলছিল চিকিৎসা। কিন্তু বিপত্তি বাঁধল সোমবার রাতে। বেথানি হাসপাতাল চত্বর কন্টেইনমেন্ট জোন (Containment Zone) বা সংক্রমিত এলাকা হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পরই চিন্তা বাড়ে স্থানীয়দের মধ্যে। সেই খবর পেয়েই করোনার হাত থেকে মুক্তি পেতে সকলের চোখের আড়ালে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডের জানলা থেকে ঝাঁপ দেন এই যুবক। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। কিন্তু এদিন বিকেলেই চিকিৎসকরা তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট হাতে পেয়ে নির্বাক হয়ে যান। যেই রোগের হাত থেকে মুক্তি এই চরম পরিণতিতে বেছে নিলেন যুবক তার হাত থেকে প্রকৃত অর্থে মুক্তি হয়নি তাঁর। চিকিৎসকের প্রতি আস্থা রাখলে হয়তো সুস্থ হয়ে উঠটতে পারতেন। ফিরে যেতে পারতেন স্বাভাবিক জীবনের ছন্দে। যুবকের মৃত্যুতে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ। তবে আইসোলেশন ওয়ার্ডের জানলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হওয়ায় প্রশ্ন উঠছে আইসোলেশন ওয়ার্ডের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও। এর আগেও অন্য রাজ্যে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। কিন্তু তারপরেও কেন সম্বিত ফিরল না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তাই নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে।

[আরও পড়ুন:কর্মই ধর্ম, মোবাইলে সদ্যোজাত সন্তানকে চোখের দেখা দেখলেন পুলিশকর্মী]

সোমবারই ওই হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক-সহ স্বাস্থ্যকর্মীদের শরীরে করোনার নমুনা মেলে। এরপরই হাসপাতালটিকে সংক্রমিত স্থান হিসেবে চিহ্নিত করে পুরোপুরি সিল করে দেওয়া হয়। মেঘালয়ের রাজ্য সরকার সম্প্রতি নোটিশ জারি করেছেন, যারা বাইরে থেকে ঘুরে এসেছেন তারা যে তাদের বিদেশ ভ্রমণের ইতিহাস জানান। জানা যায় সম্প্রতি মেঘালয়ের রাজ্য সরকারের এক আত্মীয়ই বর্তমানে মারামারির কেন্দ্রস্থল নিউ ইয়র্ক থেকে ফিরেছেন।

[আরও পড়ুন:যত্রতত্র থুতু ঠেকাতে রাজ্যগুলিকে গুটখা-খৈনি-পানমশলা নিষিদ্ধ করতে নির্দেশ কেন্দ্রের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement