২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হঠাৎ ইস্তফা কাশ্মীরের উপরাজ্যপাল জিসি মুর্মুর, পরিবর্তে এলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 6, 2020 8:53 am|    Updated: August 6, 2020 8:53 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংবিধানের ৩৭০ ধারা তথা জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের বর্ষপূর্তির দিনই হঠাৎ পদত্যাগ করলেন রাজ্যের লেফটেন্যান্ট জেনারেল জিসি মুর্মু (Girish Chandra Murmu)। বুধবার রাতে রাষ্ট্রপতির কাছে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দেন তিনি। জিসি মুর্মুর পরিবর্তে ভূস্বর্গের পরবর্তী উপরাজ্যপাল হচ্ছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনোজ সিনহা। বৃহস্পতিবার সকালে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে রাষ্ট্রপতি ভবনের তরফে সেকথা জানানো হয়েছে।

১৯৮৫ ব্যাচের গুজরাট ক্যাডারের অফিসার গিরিশ চন্দ্র মুর্মু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘনিষ্ঠ হিসেবেই পরিচিত। মোদি যখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তখনও সেরাজ্যের প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন মুর্মু। নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তাঁকে আনা হয় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকে। তারপরই জম্মু-কাশ্মীর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের উপরাজ্যপাল করা হয় তাঁকে। বুধবার তাঁর ইস্তফার খবরে রাজনৈতিক মহলে হইচই শুরু হয়ে যায়। অনেকেই স্পষ্ট কারণ খুঁজে পাচ্ছিলেন না। তবে ছবিটা খানিকটা স্পষ্ট হয়, উপত্যকার নতুন উপরাজ্যপালের নাম ঘোষণার পর। রাষ্ট্রপতি ভবনের তরফে জানানো হয়েছে, প্রাক্তন রেল প্রতিমন্ত্রী মনোজ সিনহা হবেন কাশ্মীরের নতুন উপরাজ্যপাল। মনোজ সিনহা (Manoj Sinha) বিজেপির তিনবারের সাংসদ। তবে, গতবছর লোকসভা নির্বাচনে বিএসপির কাছে পরাজিত হন তিনি। এবার তিনিই অশান্ত কাশ্মীরকে শান্ত করার দায়িত্ব সামলাবেন।

[আরও পড়ুন: অযোধ্যা আবেগে ম্লান কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলুপ্তির বর্ষপূর্তি, কারফিউয়ে বন্দি উপত্যকাবাসী]

রাজনৈতিক মহলের অনুমান, কেন্দ্র এবার কাশ্মীরে (Kashmir) রাজনৈতিক কার্যকলাপ শুরু করতে চায়। সে কারণেই একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে কাশ্মীরের উপরাজ্যপাল পদে বসানো হচ্ছে। যাতে সমস্ত রাজনৈতিক দলের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করতে পারেন তিনি। অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, জিসি মুর্মুকে এবার আরও বড় পদ দেওয়া হতে পারে। দেশের পরবর্তী কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল বা সিএজি হতে পারেন তিনি। বর্তমান সিএজি (CAG) রাজীব মহর্ষির মেয়াদ শেষ হচ্ছে শুক্রবারই। এরপর দেশের সর্বোচ্চ অডিটরের পদে বসতে পারেন মোদি ঘনিষ্ঠ মুর্মু।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement