×

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

মণিশংকর চৌধুরি, শিলং: শিলংয়ের রাজীব কুমারকে ম্যারাথন জেরা। প্রথম দিন আট ঘণ্টা ম্যারাথন জেরার পর রবিবার তাঁকে ফের হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন সিবিআই আধিকারিকরা। প্রথমে কুণাল ঘোষ এবং রাজীব কুমারকে আলাদা আলাদা বসিয়ে জেরা করা হয়। পরে মুখোমুখি বসিয়ে চলে জেরা। সিবিআই সূত্রে খবর, সোমবার ফের জেরা করার জন্য ডাকা হয়েছে রাজীব কুমার ও কুণাল ঘোষকে। আগামিকালও তাঁদের মুখোমুখি বসিয়ে জেরার করার সম্ভাবনা রয়েছে।

[আট ঘণ্টার ম্যারাথন জেরা, রবিবার ফের হাজিরা দেবেন রাজীব কুমার]

রাত ১০টা ৪৫: ম্যারাথন জেরা শেষ। সিবিআই দপ্তর থেকে বেরিয়ে গেলেন রাজীব কুমার। সোমবার ফের জেরা করার জন্য ডাকা হয়েছে রাজীব কুমার ও কুণাল ঘোষকে। আগামিকালও তাঁদের মুখোমুখি বসিয়ে জেরার করার সম্ভাবনা রয়েছে।

সন্ধে ৭ টা ১০: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে লেখা কুণাল ঘোষের একটি চার পাতার চিঠির ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সন্ধে ৬ টা ৪০: মুখোমুখি বসানো হল কুণাল ঘোষ এবং রাজীব কুমারকে। সারদা এবং রোজভ্যালি তদন্ত নিয়ে হবে জিজ্ঞাসাবাদ।

সন্ধে ৬টা ২০: শিলং পৌঁছালেন রোজভ্যালির তদন্তকারী আধিকারিক শাজম শেরপা। এবার সারদার পাশাপাশি রোজভ্যালি নিয়েও শুরু জেরা। 

বিকেল ৩.৩০: দ্বিতীয় রাউন্ডের জেরা চলছে। রাজীব কুমারের সঙ্গে কুণাল ঘোষের বয়ান মিলিয়ে দেখা হচ্ছে। আগে কুণাল যে যে অভিযোগ এনেছিলেন সেগুলি সম্পর্কে সিপিকে প্রশ্ন করা হচ্ছে বলে সিবিআই সূত্রের খবর। সিবিআই দলের নেতৃত্বে রয়েছেন কলকাতায় ‘নিগৃহীত’ সিবিআই আধিকারিক তথাগত বর্ধন।

বিকেল ৩.১৫: ফের সিবিআই দপ্তরে ঢুকলেন রাজীব কুমার।

দুপুর ১ টা ৫০: সিপিকে মধ্যাহ্নভোজনের জন্য সময় দেওয়া হয়েছে, জানালেন তাঁর আইনজীবী বিশ্বজিৎ দেব।

দুপুর ১ টা ৪৫:সিবিআই দপ্তর থেকে বেরিয়ে গেলেন রাজীব কুমার। প্রথম রাউন্ডের জেরা শেষ।
দুপুর ১ টা ৩০: 
সিবিআই দপ্তরে ঢুকলেন জাভেদ শামিম এবং রাজীব কুমারের আইনজীবী বিশ্বজিৎ দেব।

সকাল ১১:৫৫: সূত্রের খবর, এদিন চিটফান্ড সংক্রান্ত জেরায় রাজীব কুমারের বয়ান ভিডিও রেকর্ড করছেন না তদন্তকারী আধিকারিকরা।

সকাল ১০:৫০: শিলংয়ের দপ্তরে প্রবেশ সিবিআই আধিকারিকের দলের। দিল্লি থেকে আসা কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিকরা সৌজন্য বিনিময়ের পর জেরা করতে শুরু করেছেন কুণাল ঘোষ ও রাজীব কুমারকে। তবে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হবে কিনা, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

সকাল ১০:৩৫: রাজীব কুমারকে রেখে বেরিয়ে এলেন তাঁর আইনজীবী বিশ্বজিৎ দেব এবং এসিপি জাভেদ শামিম।

সকাল ১০:২৭: সিবিআই দপ্তরে ঢুকলেন রাজীব কুমার। সঙ্গে মুরলীধর শর্মা ও জাভেদ শামিম।

সকাল ১০:০০: মা সরস্বতীর পায়ে মাথা ঠেকিয়েই সিবিআই দপ্তরে ঢুকলেন কুণাল ঘোষ। তদন্তে সবরকম সহযোগিতা করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে ঢোকার মুুহূর্তে আর কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং