BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুসলিমদের করোনা পরীক্ষার পরই ভরতি নেওয়া হবে! বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের জন্য ক্ষমা চাইল হাসপাতাল

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 20, 2020 2:46 pm|    Updated: April 20, 2020 2:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চাপের মুখে পড়ে বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের জন্য ক্ষমা চাইল উত্তরপ্রদেশের মীরাটের ভ্যালেন্টিস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গত শুক্রবার একটি বিজ্ঞাপন দেয় ওই হাসপাতাল। তাতেই উল্লেখ করা হয়, করোনা সংক্রামিত নন সেই রিপোর্ট দেখাতে পারলেই চিকিৎসা করা হবে মুসলিমদের। এই বিজ্ঞাপন দেখার পরই ওঠে সমালোচনার ঝড়। তারপরই বিজ্ঞাপনটির জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

করোনা ভাইরাস সংক্রমিত নয়, এই মর্মে হেলথ রিপোর্ট দেখাতে পারলে তবেই কোনও মুসলিমের চিকিৎসা হবে’ বলে বিজ্ঞাপন দিয়েছিল উত্তরপ্রদেশে ভ্যালেন্টিস ক‌্যানসার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গত শুক্রবার এই বিজ্ঞাপন দেখা যায়। এছাড়াও ওই বিজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, যদিও কোনও রোগী জরুরি ভিত্তিতে ভরতি হতে আসেন, তবে তাঁরও কোভিড ১৯ (Covid 19)  পরীক্ষা করা হবে। তার জন্য প্রত্যেক রোগীর পরিজনদের সাড়ে ৪ হাজার টাকা দিতে হবে।
Valentis Cancer Hospital

এই বিজ্ঞাপন দেখেই উত্তেজিত হয়ে পড়েন প্রায় সকলেই। বিভিন্ন মহলে ওঠে সমালোচনার ঝড়। অনেকেই বলতে শুরু করেন, করোনা সংক্রামিত হওয়ার আশঙ্কা একজন হিন্দুর যেমন রয়েছে, তেমনই মুসলমানেরও। সেক্ষেত্রে শুধুমাত্র মুসলমান ব্যক্তির ক্ষেত্রেই এমন নির্দেশিকা কীভাবে জারি করল ওই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ? উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও টুইটে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে করোনা সংক্রমণ হতে পারে বলে উল্লেখ করেছেন।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় নেই পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যকর্মী, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেই কর্মী নিয়োগ রেলের]

সমালোচনার মাঝে নড়েচড়ে বসে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তড়িঘড়ি রবিবার আরেকটি বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। ওই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ক্ষমা প্রার্থনা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ভ্যালেন্টিস ক্যানসার হাসপাতালের রেডিও অঙ্কোলজিস্ট ডঃ অমিত জৈন বলেন, “হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কোনও নির্দিষ্ট ধর্মাবলম্বী মানুষের আবেগে আঘাত করতে চায়নি। আগের বিজ্ঞাপনের জন্য আমরা দুঃখিত। সকলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সুস্থ থাকুন।”


বিতর্কিত বিজ্ঞাপনটির প্রসঙ্গে প্রসঙ্গে মীরাটের মুখ‌্য স্বাস্থ‌্য আধিকারিক রাজ কুমার বলেন, “এটা অত‌্যন্ত ভুল কাজ। ওই হাসপাতালের কর্তৃপক্ষকে নোটিস পাঠানো হয়েছে।” এ প্রসঙ্গে মীরাটের এসএসপি অজয় কুমার সাহানি বলেন, “আমরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছি। প্রমাণ হাতে আসলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement