BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

কেউ ভাবেনি শিখ দাঙ্গার অপরাধীরা শাস্তি পাবে, কংগ্রেসকে আক্রমণ মোদির

Published by: Utsab Roy Chowdhury |    Posted: December 18, 2018 5:51 pm|    Updated: December 18, 2018 6:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৯৮৪ শিখ দাঙ্গায় কংগ্রেস নেতারা এভাবে দোষী প্রমাণিত হবে, তা চার বছর আগেও কেউ ভাবেনি। মানুষ এবার বিচার পাবে। আজ এই ভাষাতেই কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রাফালে কেলেঙ্কারি, বিধানসভা নির্বাচনে ধাক্কা, বাংলায় রথযাত্রা স্থগিত। পরপর কয়েকটি ইস্যু নিয়ে চাপে বিজেপি। দলীয় কর্মীদের চাঙা করতে শিখ দাঙ্গায় অভিযুক্ত কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমারের শাস্তি নিয়ে আক্রমণ করলেন মোদি।

[‘রাহুল পাপ্পু নয়, এবার বিয়ে করে পাপা হওয়া উচিত’, পরামর্শ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

শিখ দাঙ্গার ঘটনায় ৩৪ বছর পর দিল্লি হাই কোর্টে দোষী সাব্যস্ত করেছে কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই তা নিয়ে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদি বলেন, “চার বছর আগে কেউ ভাবেনি, ১৯৮৪ শিখ দাঙ্গার দোষীরা শাস্তি পাবে। মানুষ বিচার পাবে।” সোমবার দিল্লি হাই কোর্ট শিখ দাঙ্গার ঘটনায় অভিযুক্ত কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমারের যাবজ্জীবনের শাস্তি ঘোষণা করে। আদালত বলে, মানবিকতার বিরুদ্ধে অপরাধ হয়েছে। এই অপরাধ অনস্বীকার্য। প্রায় তিন দশক ধরে এই মামলা চলছিল। মঙ্গলবার সভায় রাফালে চুক্তি নিয়ে কংগ্রেসের অভিযোগকেও খারিজ করেন মোদি। তিনি বলেন, “সুপ্রিম কোর্ট সরকারের বিরুদ্ধে কিছু দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে। তারপর তারাই স্পষ্ট রায় ঘোষণা করেছে, রাফালে চুক্তিতে যা হয়েছে তা জলের মতো স্বচ্ছ ও সততার সঙ্গে হয়েছে। এমন ঘটনা সুপ্রিম কোর্টের ইতিহাসে প্রথম। চার বছর আগেও মানুষ ভাবতে পারত না।” সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে একটা মানসিকতা কাজ করে। মোদি বলেন, “সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আমরা সহজেই বিশ্বাস করে ফেলি। অর্থনৈতিক হোক বা দুর্নীতির অভিযোগ।”

[ঋণ মকুবের পাশাপাশি ধানের সহায়ক মূল্য বৃদ্ধি, শপথ নিয়েই চমক বাঘেলের]

শুধু তাই নয়, চপার কেলেঙ্কারি নিয়েও কংগ্রেসকে আক্রমণ করেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, “চার বছর আগে কেউ ভাবতে পারেনি চপার কেলেঙ্কারির মূল ষড়যন্ত্রী মিশেলকে দেশে আনা সম্ভব হবে। এবার সব হিসেব মিলে যাবে।” এদিন মুম্বই ও পুণের মেট্রোর উদ্বোধনে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement