BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ত্রিকোণ প্রেমের টানাপোড়েন! মহিলার মদতে তার মেয়েকে খুন করল প্রেমিক

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 23, 2020 2:36 pm|    Updated: August 23, 2020 9:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একই পুরুষের সঙ্গে মা ও মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ১৯ বছরের মেয়েটি। সেই অপরাধেই মায়ের সাহায্যে মেয়েকে খুন করল প্রেমিক। মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যেই রহস্যের সমাধান করে দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছেন উত্তর প্রদেশের (Uttar Pradesh)পুলিশ।

[আরও পড়ুন: মাত্র ৭৩ দিনের মধ্যেই ভারতের বাজারে আসছে করোনার ভ্যাকসিন! দাবি প্রস্তুতকারীদের]

পুলিশ সুপার শৈলেশ পাণ্ডে (Shailesh Pandey) জানিয়েছেন, ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বরেলি (Bareilly) এলাকায়। ১৯ বছরের তরুণীর নাম উসমা। তাঁর মায়ের নাম মুকিশা এবং প্রেমিকের নাম কওসর। উসমা এবং মুকিশাদের পাড়াতেই থাকত কওসর। মা ও মেয়ে দু’জনের সঙ্গেই সমানতালে প্রেম চালিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু কয়েকদিন ধরেই উসমা কওসরকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিল। তার কীর্তি ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছিল। এই জন্যই মুকিশার সঙ্গে মিলে উসমাকে খুন করার ছক কষে কওসর। ভোররাতে বাড়ির অন্যরা যখন ঘুমোচ্ছিলেন, তখন চুপিসাড়ে বাড়িতে ঢোকে কওসর। মুকিশা তাকে দরজা খুলে দেয়। ভিতরে ঢুকে উসমাকে ডেকে অন্য ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে খুন করে ওড়নার ফাঁসে ঝুলিয়ে দেয়। মুকিশার পরামর্শে তাকে ছুরি দিয়ে আহত করে পালিয়ে যায় কওসর। কওসর চলে যেতেই বাড়ির সবাইকে চিৎকার করে ডেকে ডাকাতির গল্প ফাঁদে মুকিশা।

[আরও পড়ুন: রাম মন্দির তৈরির বদলা নিতেই হামলার ছক ISIS জঙ্গির, বাড়ি থেকে উদ্ধার বিপুল আগ্নেয়াস্ত্র]

শৈলেশ পাণ্ডে জানান, ঘটনাস্থলে পৌঁছেই প্রথমে বাড়ির লোকজন ও পাড়া প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। বেশিরভাগই মুকিশা ও উসমার সঙ্গে কওসরের প্রেমের কথা জানতেন। সেই সন্দেহে কওসরকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। কিছুক্ষণের মধ্যেই নিজের ও মুকিশার কথা ফাঁস করে দেয় কওসর। মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যেই রহস্যের সমাধান করে ফেলে পুলিশ। দু’জনকেই গ্রেপ্তার করে আপাতত পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement