২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একমাত্র ছেলে ব্লাড ক্যানসারে আক্রান্ত। এই খবর পাওয়ার পরেই শোকগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন ৭১ বছরের মৃদুলা ভট্টাচার্য। ভাবছিলেন কী করে নিজের চোখের সামনে ছেলেকে তিল তিল করে মরতে দেখবেন! এই নিয়ে অনেক চিন্তার পর শেষপর্যন্ত আত্মহত্যার পথই বেছে নিলেন তিনি। একটি বহুতলের ১৯ তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হলেন। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের পওয়াই এলাকায়। মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর পাশাপাশি ঘটনাটির তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন- পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন অন্ত্যেষ্টি, অশ্রুসজল চোখে শীলা দীক্ষিতকে শ্রদ্ধার্ঘ্য কর্মী-সমর্থকদের]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, স্বামীর মৃত্যুর পর ছেলে, পুত্রবধূ ও নাতি-নাতনিদের সঙ্গে পওয়াই এলাকার হীরানন্দনী গার্ডেনের নরিটা নামে একটি বহুতলে বসবাস করতেন মৃদুলাদেবী। সম্প্রতি খবর পান তাঁর ছেলের ব্লাড ক্যানসার হয়েছে। এরপরই মানসিক অবসাদে ভেঙে পড়েছিলেন। শনিবার সকাল ৯টা ২০ মিনিটে নরিটা বিল্ডিংয়ের গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গায় আচমকা চেঁচামেচি শুনতে পান বহুতলের দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা। ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁরা দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছেন মৃদুলাদেবী। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় হীরানন্দনী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, সেখানকার চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[আরও পড়ুন-‘কালা জাদু’ করার জের! ডাইনি অপবাদে চারজন বৃদ্ধ-বৃদ্ধাকে পিটিয়ে খুন ঝাড়খণ্ডে]

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি মৃদুলাদেবীর ছেলের শরীরে ব্লাড ক্যানসার ধরা পড়ে। তারপর থেকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর কেমোথেরাপি চলছিল। এই খবর পাওয়ার পরেই অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন তাঁর মা। শনিবার সকালে পরিবারের অন্য সদস্যরা সবাই ব্যস্ত ছিলেন। সেই সুযোগে ১৯ তলা ঘরের জানলা থেকে নিচে ঝাঁপ দেন ৭১ বছরের ওই বৃদ্ধা। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং