BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রেললাইনে উদ্ধার ডনের ছেলের দেহ, উত্তপ্ত মুম্বই আন্ডারওয়ার্ল্ড

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 3, 2017 11:37 am|    Updated: October 3, 2017 11:37 am

Mumbai gangster’s son found dead on rail tracks

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আটের দশক। গ্যাংওয়ারে রক্তাক্ত মুম্বই। প্রাণ বাঁচাতে মরিয়া খোদ আন্ডারওয়ার্ল্ডের  কুখ্যাত ডনরাই। তারপরই পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে দাপট বাড়ায় ‘গোল্ডেন গ্যাং’। কুখ্যাত ডন হাজি মস্তান থেকে শুরু করে বরদরাজন মুদালিয়ার-এর সুরক্ষার ভারও ছিল এই গ্যাংয়ের হাতেই। তবে আন্ডারওয়ার্ল্ডে পরিস্থিতি পালটাতে সময় লাগে না। এবার নিশানায় খোদ ‘গোল্ডেন গ্যাং’।

[কাশ্মীরে জেহাদের জাল, জড়িত রোহিঙ্গাদের একাংশ: রিপোর্ট ]

পুলিশ সূত্রে খবর, সোমবার রেললাইনের ধারে উদ্ধার হয় গ্যাংস্টার গিতেশ খোপাড়ে মৃতদেহ। গিতেশ ‘গোল্ডেন গ্যাং’-এর সর্বেসর্বা কুখ্যাত ডন চন্দ্রকান্ত খোপাড়ের ছেলে। এদিন মুম্বইয়ের সেওয়ারি রেল স্টেশনের পাশে লাইনের ধারে একটি দেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরাই পুলিশে খবর দেন। পুলিশি তদন্তে গিতেশের পরিচয় বেরিয়ে আসে। ঘটনায় রেল পুলিশে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত। প্রাথমিক তদন্তে হত্যার সম্ভাবনাই সামনে আসছে। পুলিশ মনে করছে গিতেশকে অন্য কোথাও হত্যা করে লাশ লাইনের ধারে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মুম্বই পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বিরোধী গ্যাংয়ের সদস্যরা এই কাজ করে থাকতে পারে। তবে কে বা কারা এই খুনে জড়িত তা এখনও স্পষ্ট নয়। ক্রাইম ব্রাঞ্চের এক অফিসার জানিয়েছেন, বাবার সঙ্গে বিশেষ বনিবনা ছিল না গিতেশের। ফলে গোল্ডেন গ্যাংয়ের সঙ্গে সে কতটা জড়িত ছিল তা স্পষ্ট নয়। মুম্বইয়ের লোয়ার পারেল এলাকায় দাপট রয়েছে গোল্ডেন গ্যাংয়ের। ওই এলাকার সান মিল হচ্ছে গ্যাংটির সদর ঘাঁটি। পারেল এলাকায় কারবার ছিল গিতেশের। সেখানে বেশ কয়েকটি দোকান রয়েছে তার। অভিযোগ, ওই ঠেকগুলি থেকেই স্মাগলিং-সহ অন্যান্য বেআইনি ব্যবসা চালাত সে। গিতেশের মৃত্যুতে ফের মুম্বইয়ে গ্যাংওয়ার শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ।

[নাবালিকাকে গণধর্ষণের ভিডিও পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায়, গ্রেপ্তার তিন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে