BREAKING NEWS

৫ কার্তিক  ১৪২৮  শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Lakhimpur Kheri violence: কৃষক হত্যার ঘটনায় খুনের মামলা রুজু কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 4, 2021 11:42 am|    Updated: October 4, 2021 11:50 am

Murder Case Against Union Minister's Son, Others In UP Violence | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লখিমপুর খেরির ঘটনায় (Lakhimpur Kheri violence) উত্তপ্ত গোটা দেশ। বিরোধীরা মুণ্ডপাত করে চলেছে যোগী আদিত্যনাথ সরকারের। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় কুমার মিশ্র, তাঁর ছেলে আশিস মিশ্র এবং আরও বেশ কয়েকজন সহযোগীর বিরুদ্ধে শেষপর্যন্ত মামলা রুজু করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

লখিমপুর খেরির পুলিশ সুপার বিজয় ধুল জানিয়েছেন, রবিবার ঘটনার পর কৃষকদের অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩০২ ধারায় খুন, ১২০-বি এবং ১৪৭ ধারায় তিকুনিয়া পুলিশ স্টেশনে মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে, রবিবার রাতের ঘটনার প্রতিবাদের রোষ আছড়ে পড়েছে কৃষক সংগঠনগুলির মধ্যে। সংগঠন এবং নিহতদের পরিবারের তরফে অভিযুক্তের বাবা, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদত্যাগ এবং নিহতদের পরিবারকে সরকারি চাকরি দেওয়ার দাবি ওঠে। জেলাশাসকের কাছে এই মর্মে আবেদনও জমা পড়েছে বলে খবর। এছাড়া সিট গঠনের জন্য সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার পক্ষ থেকে দেশের রাষ্ট্রপতির কাছে চিঠিও পাঠানো হয়েছে।

 

[আরও পড়ুন: WB By-Elections 2021: মমতার বিশাল জয় বিজেপির থেকে বেশি চিন্তায় রাখবে কংগ্রেসকে]

তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর দাবি, তাঁর ছেলে ঘটনার সময় সেখানে ছিলেন না। এমনকী আশিস মিশ্রও জানিয়েছেন, তিনি এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। এদিকে, এই ঘটনায় তীব্র বিতর্কের পর উত্তরপ্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে বিবৃতিও জারি করা হয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, “গোটা ঘটনায় শোকস্তব্ধ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এই ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়েছেন তিনি। উত্তরপ্রদেশ সরকার গোটা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করবে এবং দোষীদের কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না।”

রবিবার উত্তরপ্রদেশে বিক্ষোভরত কৃষকদের উপরে গাড়ি চালিয়ে পিষে মারার মতো ভয়ংকর ঘটনা ঘটে। ৮ কৃষকের মৃত্যুতে মূল অভিযুক্ত হিসেবে নাম উঠে আসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে আশিসের। তবে রবিবারের ওই ঘটনার পর থেকে কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হয় যোগীরাজ্যের লখিমপুর খেরি। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় পুলিশে তিনটি গাড়িতে। সংবাদসংস্থা ANI সূত্রে খবর, লখিমপুর বিমানবন্দরে নামতেই দেওয়া হয়নি ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের কপ্টার। তিনিও কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে সেখানে যাচ্ছিলেন। বিমান অবতরণে বাধা দেওয়া হয়েছে পঞ্জাবের উপমুখ্যমন্ত্রীকেও। এমনকী এজন্য লখনউ বিমানবন্দরকে এই সংক্রান্ত স্পষ্ট নির্দেশিকাও জারি করা হয়েছে।এছাড়া ধরনায় বসায় আটক করা হয়েছে উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকে। কৃষক বিক্ষোভের জেরে অগ্নিগর্ভ লখিমপুরে নিরাপত্তার স্বার্থে বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। গোটা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। ফলে কাউকে সেখানে ঢুকতে দেওয়া যাবে না বলে দাবি পুলিশের।

[আরও পড়ুন: মিকা থেকে আরিয়ান, বহু তারকাকেই ধরেছেন সমীর ওয়াংখেড়ে, কে এই ‘দাবাং’ অফিসার?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement