BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কর্তারপুর করিডর উদ্বোধন, কেন্দ্রের কাছে পাকিস্তান যাওয়ার অনুমতি চাইলেন সিধু

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 2, 2019 9:40 pm|    Updated: November 2, 2019 9:44 pm

Navjot Singh Sidhu asks MEA for permission to visit Pakistan

ফাইল ফোটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তান যাওয়ার জন্য বিদেশ মন্ত্রকের কাছে অনুমতি চাইলেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। কর্তারপুর করিডর উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য কংগ্রেসের প্রতিনিধি তালিকায় তাঁর নাম ছিল না। বিষয়টি জানতে পেরে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর বন্ধু ইমরান খান সিধুকে ৯ নভেম্বরের ওই অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। তার প্রেক্ষিতেই শিখ ধর্মগুরু নানকের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে পাকিস্তানের কর্তারপুরে যেতে চান নভজ্যোত সিং সিধু। আর তাই বিদেশ মন্ত্রকের কাছে সেখানে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে চিঠি লিখেছেন অমৃতসরের কংগ্রেস বিধায়ক। শনিবার তাঁর এই চিঠিটি রাজ্যের মুখ্যসচিব বিদেশ মন্ত্রকের দপ্তরে পাঠিয়ে দিয়েছেন বলেও জানান পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দার সিং।

[আরও পড়ুন: পার্কিং নিয়ে বচসার জের, পুলিশ ও আইনজীবীদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্র দিল্লির আদালত]

পাকিস্তানে যাওয়ার অনুমতি চেয়ে বিদেশ মন্ত্রককে লেখা চিঠিতে সিধু উল্লেখ করেছেন, ‘একজন ধর্মপ্রাণ শিখ হিসেবে আমাদের প্রিয় গুরু বাবা নানকের জন্মবার্ষিকীতে কর্তারপুরে যাওয়া খুবই সৌভাগ্যের বিষয়। ঐতিহাসিক ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারলে আমি নিজেকে ধন্য মনে করব। ওখানে হাজির হতে পারলে আমাদের শিকড় স্পর্শ করতে পারব।’

বর্তমানে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চরম টানাপোড়েন চলছে। তবুও কর্তারপুর করিডরের বিষয়টি এর থেকে দূরে রাখতে চাইছে ভারত। ইতিমধ্যে ওই করিডরের উদ্বোধনে ভারতের তরফ থেকে যারা উপস্থিত থাকবেন তাঁদের নামের তালিকা পাকিস্তানকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাতে শাসক ও বিরোধী দলের প্রতিনিধিদের পাশাপাশি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংও রয়েছেন। এছাড়া কেন্দ্র এবং পাঞ্জাবের কয়েকজন মন্ত্রীও রয়েছেন। যে তালিকায় নাম নেই সিধুর। তাই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণ পাওয়ার পরেই ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের কাছে সেখানে যাওয়ার অনুমতি চেয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন:শীঘ্রই ফের চন্দ্রাভিযান করবে ইসরো, জানিয়ে দিলেন কে শিবন]

এই ধরনের বিষয়ের ক্ষেত্রে সাধারণ ভিসার নিয়মই মানা হবে বলে জানান বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রাবিশ কুমার। তিনি বলেন, ‘যাদের পাকিস্তান আমন্ত্রণ জানিয়েছে। আর যারা ভবিষ্যতে সেখানে যেতে চান তাঁদের ক্ষেত্রে সাধারণ ভিসার নিয়মই প্রযোজ্য হবে। অন্য দেশের ভিসা নিতে গেলে যে নিয়ম ও পদ্ধতি মানতে হয় এক্ষেত্রেও তাই মেনে চলা হবে।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement