BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টার্গেট ত্রিপুরা, পরিবর্তনের প্রস্তুতি তৃণমূলের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 10, 2016 9:51 am|    Updated: June 23, 2022 7:54 pm

Next target of TMC is Tripoora

স্টাফ রিপোর্টার: এবার তৃণমূলের পরিবর্তনের টার্গেট ত্রিপুরা৷
২০১৮ সালে সে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতা হারাবে মানিক সরকারের সিপিএম৷ সরকার গড়বে তৃণমূল৷ বৃহস্পতিবার দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায় এই মন্তব্য করে জানিয়েছেন, “ত্রিপুরায় সংগঠন তৈরির কাজ ইতিমধ্যে শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল৷ সেখানে প্রবল সিপিএম-বিরোধী হাওয়া৷ মানুষ মানিকবাবুর সরকারকে আর চায় না৷ ২০১৮-এ তৃণমূলই সেখানে সরকার গড়বে৷”
দলের সহ-সভাপতি এই মুহূর্তে ত্রিপুরায় সংগঠনের দায়িত্বে৷ বেশ কয়েকবার ইতিমধ্যে তিনি ত্রিপুরায় সংগঠনের হাল হকিকতও খতিয়ে দেখে এসেছেন৷ তাঁর কথায়, বুবাবুর মতোই ধুতি-পাঞ্জাবি পরেন মানিকবাবু৷ বুদ্ধবাবুকে যেভাবে ‘খুব ভাল খুব ভাল’ বলে প্রচার করা হত, মানিকবাবুরও ক্ষেত্রেও একই অবস্থা৷ কিন্তু তিনি জন-বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন৷ জনপ্রিয়তা হারিয়েছে সিপিএম৷ ব্যাখ্যা দিয়ে মুকুলবাবু আরও বলছেন, আসলে সিপিএম-বিরোধী চরিত্র হিসাবে গোটা দেশের মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দীর্ঘদিন ধরে চেনেন৷ সেই সুবাদে বঙ্গ লাগোয়া রাজ্য ত্রিপুরাও তৃণমূলনেত্রীকেই আদর্শ বলে মানেন৷
বস্তুত, ত্রিপুরায় সংগঠন তৈরির প্রক্রিয়া দীর্ঘদিন ধরে চালাচ্ছিল তৃণমূল৷ সেই প্রস্তুতির মাঝেই ইঙ্গিত ছিল এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনোত্তর পরিস্থতিতে ত্রিপুরায় সংগঠন বিস্তারে মনোযোগী হবে তৃণমূল৷ সেই অনুযায়ী সদ্য সেখানে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস ভাঙার কাজও করেছে তারা৷ তাদের ছয় বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় সেখানে এখন তৃণমূল প্রধান বিরোধী দল৷ এই পরিস্থিতিতে মাঝেমাঝেই ত্রিপুরায় দলের সংগঠন দেখার কাজে ছুটছেন মুকুলবাবু৷ এ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের পরপরই একাধিকবার ত্রিপুরায় গিয়েছেন তিনি৷ তার ভিত্তিতে জানাচ্ছেন, সেখানে উচ্চ বা মধ্যবিত্ত মানুষ শুধু নন, তফসিলি জাতি-উপজাতির মানুষের কাছেও এখন বিপদের বার্তা মানিকবাবুর সরকার৷ মুকুলবাবু বলছেন, “ত্রিপুরার যা পরিস্থিতি তাতে সিপিএমের বিরু‌দ্ধে এবার আগুন জ্বলবে৷ সেই পরিস্থিতিতেই মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে তৃণমূল৷”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে