BREAKING NEWS

৭ কার্তিক  ১৪২৮  সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

খলিস্তানি জঙ্গির সঙ্গে সিধুর ছবি, এনআইএ তদন্তের দাবি স্বামীর

Published by: Tanujit Das |    Posted: November 30, 2018 1:47 pm|    Updated: November 30, 2018 2:02 pm

NIA probe against Sidhu

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খলিস্তানি নেতা তথা জঙ্গি হাফিজ সইদের বন্ধু গোপাল সিং চাওলার সঙ্গে ছবি তুলে ইতিমধ্যেই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোৎ সিং সিধু৷ এমত পরিস্থিতিতে পাঞ্জাবের এই মন্ত্রীর গ্রেপ্তারির দাবি জানালেন সুব্রক্ষ্মণ্যম স্বামী৷ বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদের দাবি, একজন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতার সঙ্গে ছবি তুলে জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত করেছেন সিধু৷ ফলে জাতীয় নিরাপত্তা আইনে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হওয়া উচিত এবং শীঘ্রই তাঁকে গ্রেপ্তার করা প্রয়োজন৷ এমনকী, সিধুর বিরুদ্ধে এনআইএ তদন্তরও দাবি জানিয়েছেন স্বামী৷

[হনুমানকে দলিত বলে বিপাকে যোগী, পেলেন আইনি নোটিস]

কর্তারপুর করিডর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে চলতি সপ্তাহে পাকিস্তানে গিয়েছেন নভজ্যোৎ সিং সিধু৷ নিজের ‘পাকিস্তান প্রীতি’ প্রমাণ করতে সেদেশের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ঢালাও প্রশংসা করেছেন তিনি৷ এখানেই শেষ নয়, খলিস্তানপন্থী ও ভারতবিরোধী নেতা গোপাল সিং চাওলার সঙ্গে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে ছবিও তুলেছেন এই কংগ্রেস নেতা। যা নিয়ে চরমে উঠেছে বিতর্ক৷ যদিও আত্মপক্ষ সমর্থনে যুক্তি সাজিয়ে পরিবেশন করেছেন সিধু৷ তিনি জানিয়েছেন, গোপাল চাওলাকে তিনি চেনেন না৷ তাই এই বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতার সঙ্গে ছবি তুলেছেন৷ যদিও সিধুর এই যুক্তি কানে তুলতে নারাজ বিজেপি সাংসদ সুব্রক্ষ্মণ্যম স্বামী৷ সিধুকে আক্রমণ করেছেন বিজেপির অন্যতম মুখপাত্র মুখতার আব্বাস নকভিও৷ তিনি বলেন, “এটা কোনও কমেডি শো নয়, সিধুকে সেটা মনে রাখতে হবে। পাকিস্তানের মাটিতে এই ধরনের কার্যকলাপ উপেক্ষা করা যাবে না।” সিধুর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরসিমরত কউর৷ তিনি বলেন, “সিধু ভারতের থেকে পাকিস্তানে বেশি ভালবাসা পান।” যদিও সিধুর এই কার্যকলাপ নিয়ে ‘স্পিকটি নট’ কংগ্রেস৷ এই বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া আসেনি তাঁদের তরফ থেকে। তবে রাজনৈতিক মহলের ধারণা, সিধুর এই পাকিস্তান প্রীতি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বড় অস্ত্র তুলে দিতে পারে বিজেপির হাতে৷ যা সত্যিই বড় বিপদ হতে পারে কংগ্রেসের জন্য৷

[মোবাইলে ব্যালেন্স থাকলে পরিষেবা বন্ধ করা যাবে না, নির্দেশ ট্রাইয়ের]

শিখদের অন্যতম পবিত্র তীর্থক্ষেত্র হল কর্তারপুর দরবার সাহিব গুরুদ্বার৷ তীর্থযাত্রীদের সুবিধার্থে পাঞ্জাবের গুরদাসপুরের ডেরা বাবা নানক থেকে পাকিস্তানের কর্তারপুর পর্যন্ত একটি করিডর নির্মাণ করা হচ্ছে৷ বুধবার কর্তারপুরে এই করিডরের উদ্বোধন করেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ সেই অনুষ্ঠানেও হাজির ছিল খলিস্তানপন্থী নেতা গোপাল সিং চাওলা৷ হাফিজ সইজের বন্ধু হিসাবে পরিচিত এই নেতাই সাম্প্রতিক অমৃতসর হামলার নেপথ্যে ছিল বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা৷ বুধবারের অনুষ্ঠানে পাক সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সঙ্গে একমঞ্চে বসে থাকতে দেখা যায় তাকে৷ কেবল মঞ্চ ভাগ করে নেওয়াই নয়, এই উগ্রবাদী নেতার সঙ্গে খোসমেজাজে গল্প করতে, ছবি তুলতে এবং আলিঙ্গন করতেও দেখা যায় পাক সেনাপ্রধানকে৷ যে ঘটনার তীব্র বিরোধিতা করে ভারত৷ এই ঘটনাই পাকিস্তানের দ্বিচারিতা প্রমাণ করল বলে অভিযোগ করেছে নয়াদিল্লি৷ তাঁদের যুক্তি, প্রকাশ্যে মানতে না চাইলেও, আদতে যে খলিস্তানি আন্দোলনে মদত দিচ্ছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই এবং খলিস্তানিদের উসকে দিয়ে পাঞ্জাবে অশান্তি পাকানোর ষড়যন্ত্র কষছে রাওয়ালপিণ্ডি৷ এই ঘটনাই তার প্রমাণ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement