BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল উত্তর-পূর্ব ভারত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 26, 2017 6:56 am|    Updated: August 21, 2020 1:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক২৬ জানুয়ারির সকালে ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল অসম ও মণিপুর। বৃহস্পতিবার সকালে অসমের শিবসাগর, ডিব্রুগড় ও তিনসুকিয়ায় পরপর সাতটি বিস্ফোরণ হয়। অন্যদিকে মণিপুরের মন্ত্রীপুখরি ও মণিপুর কলেজের কাছে দুটি বিস্ফোরণ হয়। এই ঘটনায় দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী উলফা (ইন্ডিপেনডেন্ট)। উলফার পরেশ বড়ুয়ার সমর্থকরা প্রথম থেকেই সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান বয়কটের ডাক দেয়। কিন্তু রাজ্যবাসী সে ডাক উপেক্ষা করেই গণতন্ত্রের উৎসবে শামিল হন এদিন। তাই এই ঘটনা বলে মনে করছে প্রশাসন। অসমের ডিজিপি মুকেশ সহায় জানান, এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর নেই। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বিস্ফোরণে ব্যবহৃত আইইডির তীব্রতা কম থাকায় বড় বিপদ এড়ানো গিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে গোটা দেশ যখন সাধারণতন্ত্র দিবস উদযাপনে ব্যস্ত তখনই কেঁপে উঠল অসমের তিন জেলা। উত্তর অসম ও অসম-নাগাল্যান্ড সীমান্তে এদিন সাতটি ধারাবাহিক আইইডি বিস্ফোরণ হয়। ডিব্রুগড়ে শহরে বিস্ফোরণস্থল ছিল চৌকিডিঙি প্যারেড গ্রাউন্ড থেকে মাত্র ৫০০ মিটার দূরে। প্যারেড গ্রাউন্ডে তখন চলছে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের প্রস্তুতি। বীভৎস শব্দে কেঁপে ওঠে এলাকা। হাই সিকিউরিটি জোন হওয়ায় ময়দানে নেমে পড়ে বিরাট সেনাবাহিনী। তাঁরাই স্থানীয় চা-বাগানের নর্দমায় ফেলে বিস্ফোরকগুলিকে নিষ্ক্রিয় করে। চড়াইদোর ঢোলবাগান ও বিহু বরে আরও দুটি বিস্ফোরণ হয়। শিবসাগরের কাছে লেঙ্গিবর আর মাজপানিও বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে এদিন সকালে। একই ঘটনা ঘটে তিনসুকিয়ায় সিসিমি ও সুকান পুখুরিতে। সিসিমি গ্রামের একটি ফাঁকা জলের ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার হয় বিস্ফোরক।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement