২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

নিয়ম বিরুদ্ধ কাজ! রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনল বিরোধীরা

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 20, 2020 5:31 pm|    Updated: September 20, 2020 5:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষি বিল নিয়ে  ‘নিয়ম বিরুদ্ধ’ কাজের অভিযোগ। সদ্য পুনঃনির্বাচিত রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান (RS DY Chairman) হরিবংশ নারায়ণ সিংয়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব  আনল বিরোধীরা। আবার এর পালটা হিসেবে ‘দুর্ব্যবহার’ (Ruckus) করার অভিযোগে কংগ্রেস এবং তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন সাংসদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। এনিয়ে উপ-রাষ্ট্রপতি তথা রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুর বাসভবনে বৈঠকে বসেছেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান, সংসদীয় বিষয়কমন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী এবং রাজ্যসভার ডেপুটি নেতা পীযূষ গোয়েল।

রবিবার সকাল থেকেই কৃষি বিল নিয়ে রাজ্যসভায় তুমুল হই হট্টগোল বাধে। বিল দু’টি সংসদের সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর দাবি তোলেন বিরোধীরা। বাকবিতণ্ডার মধ্যেই মহামারী পরিস্থিতিতে রাজ্যসভার অধিবেশনের নির্ধারিত সময় তথা দুপুর একটা বেজে যায়। তাই আগামিকাল (সোমবার) পর্যন্ত কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমরের জবাব স্থগিত রাখার আরজি রাখেন বিরোধীরা। কিন্তু তাতে আমল দেননি হরিবংশ। বরং সেই আরজি খারিজ করে দেন তিনি। এদিকে বিলদু’টি সংসদের সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব গৃহীত না হওয়ায় বিরোধীরা ওয়ালে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

[আরও পড়ুন : ‘চিনের মতো অন্য প্রতিবেশীর সঙ্গেও আলোচনা হোক’, ফের ‘পাক প্রীতি’ ফারুক আবদুল্লাহর!]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, কংগ্রেস সাংসদ রিপুন বোরা, তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন, আপ সাংসদ সঞ্জয় সিং ও ডিএমকে সাংসদ ত্রিরুচি শিবা হরিবংশের পোডিয়ামের মাইক কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। তাঁর বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। এমনকী, তাঁরা রুলবুক, কাগজপত্রও ছিঁড়ে দেন বলে অভিযোগ। যদিও বিরোধীদের দাবি, রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানকে রুল বুক দেখানোর চেষ্টা করেন ডেরেক। তাঁকে সরিয়ে দেন রাজ্যসভার মার্শাল। সেসময় ১০ মিনিটের জন্য অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হয়। পরে অধিবেশন শুরু হলে ধ্বনি ভোটে বিল পাশ হয়ে যায়। এরপর কংগ্রেস, তৃণমূল, বাম ও ডিএমকে সাংসদরা রাজ্যসভার কক্ষে ধরনায় বসেন। তবে লোকসভা অধিবেশন শুরুর নির্ধারিত সময়ের আগেই তাঁরা চলে যান। এরপরই ডেপুটি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব (No Confidence Motion) আনলেন সাংসদরা।

[আরও পড়ুন : ‘কৃষি বিল চাষিদের মৃত্যু পরোয়ানা’ কটাক্ষ বিরোধীদের, ‘যুগান্তকারী পদক্ষেপে’র প্রশংসায় মোদি]

এ প্রসঙ্গে কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ আহমেদ প্যাটেল বলেন, ‘ওঁর (রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান) গণতান্ত্রিক ঐতিহ্য রক্ষা করা উচিত। কিন্তু তার পরিবর্তে আজ যে হাবভাব ছিল, তাতে গণতান্ত্রিক ঐতিহ্য ও প্রক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাই তাঁর বিরুদ্ধে আমরা অনাস্থা প্রস্তাব আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, এই অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করেছেন কংগ্রেস, তৃণমূল, সপা, আরজেডি, বাম, টিআরএস ও মুসলিম লিগের সাংসদরা। এদিকে সাংসদদের এহেন আচরণে বেজায় চটেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুও। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বৈঠকে বসেছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement