BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সংবিধানে লাভ জেহাদের কোনও উল্লেখই নেই’, বিজেপিকে তোপ ওয়েইসির

Published by: Biswadip Dey |    Posted: December 29, 2020 6:03 pm|    Updated: December 29, 2020 6:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের পরে মধ্যপ্রদেশেও (Madhya Pradesh) ‘লাভ জেহাদ’ (Love-Jihad) বিরোধী আইন চালু হওয়ার পথে। সেখানকার মন্ত্রিসভায় পাশ হয়ে গিয়েছে ‘ধর্ম স্বতন্ত্রতা বিল ২০২০’। এরই মধ্যে তা নিয়ে আজ ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন AIMIM প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়েইসি (Asaduddin Owaisi)। তাঁর অভিযোগ, সংবিধানে কোনও উল্লেখই নেই ‘লাভ জেহাদ’-এর। অথচ সেটা নিয়েই আইন আনছে বিজেপি (BJP)।

ঠিক কী বলেছেন ওয়েইসি? এদিন এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানান, ‘‘লাভ জেহাদের কোনও সংজ্ঞা সংবিধানে নেই। বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি এই আইন এনে সংবিধানের অপমান করছে। বিজেপি সরকার যদি সত্যিই কোনও আইন আনতে চায়, তাহলে এমএসপি নিয়ে করুক। কিংবা কর্মসংস্থান নিয়েও করতে পারে।’’

[আরও পড়ুন: টিআরপি বাড়াতে BARC কর্তাদের লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়েছেন অর্ণব! বিস্ফোরক মুম্বই পুলিশ]

প্রসঙ্গত, এর আগেও ‘লাভ জেহাদ’ নিয়ে এমনই বিস্ফোরক মেজাজে দেখা গিয়েছে হায়দরাবাদের সাংসদকে। গত নভেম্বরে তিনি বলেছিলেন, এই ধরনের আইন সংবিধানের ১৪, ২১ ও ২৫ নম্বর ধারাকে লঙ্ঘন করছে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে ওয়েইসি বলেছি‌লেন, ‘‘আর কত ঘৃণা ছড়াবেন? এবার এসব বন্ধ করুন মোদিজি। কেবল ভালবাসা ছড়িয়ে দিন।’’ প্রসঙ্গত, সংবিধানের ওই ধারাগুলিতে বলা হয়েছে, সরকার কোনও নাগরিকের ব্যক্তিগত জীবনে হস্তক্ষেপ করতে পারবে না।

জেডিইউয়ের বর্ষীয়ান নেতা কেসি ত্যাগীর গলাতেই এই সুর শোনা গিয়েছে। গত রবিবার তিনি বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘‘লাভ জেহাদের নামে দেশে ঘৃণা ও বিভাজনের পরিবেশ তৈরি করা হচ্ছে।’’ এদিকে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান জানিয়েছেন এই বিল আইনে পরিণত হলে সর্বোচ্চ দশ বছরের সাজা হবে। পাশাপাশি ন্যূনতম এক লক্ষ টাকা জরিমানাও করা হবে অভিযুক্তকে। উত্তরপ্রদেশে আগেই এই সংক্রান্ত আইন এনেছে যোগী সরকার। ইতিমধ্যেই সেই আইনে অনেককেই আটক করা হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: দেশের দৈনিক করোনা সংক্রমণ কমলেও বাড়ছে উদ্বেগ, ৬ জনের দেহে নয়া স্ট্রেনের হদিশ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement