২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সোমনাথ রায়, নয়াদিল্লি: হস্টেল ফি বৃদ্ধি নিয়ে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে তৈরি হওয়া অচলাবস্থা কাটাতে আজ শাস্ত্রী ভবনে বৈঠকে যোগ দিলেন পড়ুয়ারা। কিন্তু জট কাটল না তাতেও। মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে তৈরি তিন সদস্যের উচ্চপর্যায়ের কমিটি শুধুই পড়ুয়াদের কথা শুনেছে এবং নিজেদের প্রস্তাব পেশ করেছে। কোনও সমাধান সূত্র বের করে দিতে পারেনি। দীর্ঘক্ষণ বৈঠকের পর বেরিয়ে এমনই জানিয়েছেন জেএনইউ ছাত্র সংসদের প্রেসিডেন্ট ঐশী ঘোষ।
তিনগুণ বেড়েছে হস্টেলের ফি। জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষাগ্রহণ করা আর যে কোনও পড়ুয়ার আয়ত্বে নেই। তা মুষ্টিমেয় মানুষজনের জন্য সীমাবদ্ধ হয়ে গিয়েছে।এই অভিযোগে সরব হয়ে ছাত্র সংসদ দাবি তোলে, বর্ধিত ফি পুরোটাই প্রত্যাহার করে নিতে হবে। অধিকার দিতে হবে সবাইকে। এই দাবির মুখে পড়ে শুধুমাত্র দারিদ্রসীমার নিচে থাকা ছাত্রছাত্রীদের জন্য এই ফি তুলে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তা মেনে নিতে নারাজ ছাত্র সংসদ। আন্দোলনে নেমেছেন তাঁরা। যার জেরে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে দেশের অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। তা কাটাতে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে জেএনইউ-এর পড়ুয়াদের সঙ্গে আলোচনায় বসে সমাধানের জন্য উচ্চপর্যায়ের কমিটি গড়ে দেওয়া হয়েছে। বুধবার, মন্ত্রক অর্থাৎ শাস্ত্রী ভবনে জেএনইউ-এর ছাত্র সংসদের প্রেসিডেন্ট ঐশী ঘোষ-সহ একদল প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠকে বসেন কমিটির সদস্যরা। উপাচার্যকে ডাকা হলেও, তিনি গরহাজির ছিলেন।

[আরও পড়ুন: সম্মতি সোনিয়ার, মহারাষ্ট্রে সরকার গড়তে শিব সেনার সঙ্গে জোটে যাচ্ছে কং-এনসিপি]

বৈঠক শেষে ঐশী জানিয়েছেন যে কোনও সমাধান বেরয়নি। তাঁর দাবি, এবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে উপাচার্য-সহ অন্যান্য আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে। সমস্ত দাবি মনোযোগ সহকারে শুনে সমাধান করে দিতে হবে। এমনকী ছাত্র সংসদের তরফে এই হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে যে হয় সমাধান, নয়ত উপাচার্য পদত্যাগ করুন। এদিনও জেএনইউ-এর ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মন্ত্রকে বৈঠক উপলক্ষে শাস্ত্রী ভবন ঘিরে ছিল কড়া নিরাপত্তা বলয়। পুলিশ, সিআরপিএফ রীতিমতো পরীক্ষা করে ছাত্রছাত্রীদের ঢুকতে দিয়েছে বলে অভিযোগ। এর পরিপ্রেক্ষিতেও ছাত্র সংসদের প্রশ্ন, আলোচনায় ডাকা হয়েছে, তাই তাঁরা গিয়েছেন, এতে এত নিরাপত্তা কীসের জন্য? জেএনইউ-এর জট কেটে কবে স্বাভাবিক পঠনপাঠন শুরু হবে, সে বিষয়ে বুধবারের উচ্চপর্যায়ের বৈঠকও কোনও দিশা দেখাতে পারল না।

[আরও পড়ুন: ত্রিপুরার শিল্পকীর্তি ধ্বংস করতে ফন্দি করে মোঘলরা! আজব দাবি বিপ্লব দেবের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং