১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

লকডাউনের আতঙ্কে ঘরে ফিরছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা, ভিড় এড়াতে বিশেষ ব্যবস্থা রেলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 16, 2021 4:12 pm|    Updated: April 16, 2021 4:19 pm

No state has asked to stop train services says Railway Board chairman | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এখনই লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করার কোনও পরিকল্পনা নেই। কোনও রাজ্য সরকার ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করতে অনুরোধও করেনি। বরং উলটোপথে হেঁটে বড় সিদ্ধান্ত নিল রেল (Indian Railways)। জানানো হয়েছে, ভিড় এড়াতে এবার বাড়তি ট্রেন চালানো হবে। ভিনরাজ্যে আটকে থাকা মানুষেরা যাতে সহজে বাড়ি ফিরতে পারেন, সেজন্য ‘সামার স্পেশ্যাল’ ট্রেন চালাবে রেল।

হু হু করে বাড়ছে দেশের করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ। লকডাউনের আতঙ্কে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ফের ঘরে ফেরা শুরু করেছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। রেল স্টেশনগুলিতে ফের চোখে পড়ছে ঠাসাঠাসি ভিড়। যার ফলে আরও বাড়ছে সংক্রমণের সম্ভাবনা। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার রেলবোর্ডের (Railways Board) বৈঠকের দিকে নজর ছিল গোটা দেশের। মনে করা হচ্ছিল, রেলের এই বৈঠকে আগামী দিনে ট্রেন চলাচল নিয়ে বড় কোনও ঘোষণা করা হতে পারে। কনটেন্টমেন্ট জোনগুলিতে ট্রেন বন্ধ করা হতে পারে বলেও একটা জল্পনা ছিল। কিন্তু আগের বারের লকডাউন থেকে শিক্ষা নিয়ে রেল এবার সেপথে হাঁটছে না। বরং উলটো পথে হেঁটে আরও বেশি ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রেলবোর্ডের তরফে। রেলের তরফে জানানো হয়েছে, ভিড় এড়াতে সার্বিকভাবে ৭০ শতাংশ ট্রেন পরিষেবা ইতিমধ্যেই চালু করা হয়েছে। এরপর প্রয়োজনে অতিরিক্ত সামার স্পেশ্যাল ট্রেন চালানো হবে।

[আরও পড়ুন: কোভ্যাক্সিন তৈরির অনুমতি পেল মহারাষ্ট্রের হফকিন ইনস্টিটিউট, মোদিকে ধন্যবাদ জানালেন উদ্ধব]

রেলবোর্ডের চেয়ারম্যান সুনীত শর্মা (Sunnet Sharma) সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কোনও রাজ্য এখনও ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করার আবেদনই জানায়নি। যেখানে যেখানে রাজ্য সরকারগুলি কনটেন্টমেন্ট জোন নিয়ে উদ্বেগপ্রকাশ করেছে, সেখানে সেখানে আমরা অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছে। বহু যাত্রীর করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে, থার্মাল স্ক্রিনিংও করছে রেল। শুধু তাই নয়, করোনা বিধি না মানলে জরিমানার যে নিয়ম আছে, তা আরও কঠোরভাবে লাগু করা হবে।” তিনি জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে ১ হাজার ৪৯০টি মেইল এবং প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালানো হচ্ছে। ৫ হাজার ৩৯৭টি লোকাল ট্রেন নিয়মিত চলছে। অতিরিক্ত ভিড় কমাতে এপ্রিল এবং মে মাসজুড়ে ১৪০টি স্পেশ্যাল ট্রেন চালানো হবে। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, রেলের তরফে সমস্তরকম সচেতনতা অবলম্বন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। তবে, যাত্রীদের অনাবশ্যক রেলযাত্রা এড়াতে অনুরোধ করেছেন রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement