২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অমরনাথ যাত্রীদের উপর হামলার প্রতিবাদে একজোট হিন্দু-মুসলিমরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 12, 2017 8:57 am|    Updated: July 12, 2017 8:57 am

Not In My Name: Protest gathering against Amarnath Terror Attack at Jantar Mantar

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নট ইন মাই নেম- ইতিহাস থেকে উঠে আসা একটি স্লোগান। ভীষণভাবে প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে এ সময়ে। গণপিটুনির প্রতিবাদে দেশের বিভিন্ন শহরের একশ্রেণির মানুষকে প্রতিবাদের মঞ্চ দিয়েছিল এ স্লোগান। বিতর্কের শ্যাওলাও অবশ্য ইতিমধ্যে জায়গা করে নিয়েছে চারটি শব্দের ফাঁকফোকরে। প্রশ্ন উঠছিল, এ কি শুধু একতরফা প্রতিবাদের ছাতা! শুধু একলাখ বা জুনেইদের হত্যার বিরুদ্ধেই তা খোলা হবে? নাকি ধর্ম ও রাজনীতির ভেদাভেদ ভুলে নিরপেক্ষ একটা প্ল্যাটফর্মের ছায়া দিতে পারবে এই স্লোগান? অবশেষে দ্বিধা কাটল। সংশয় ঘুচিয়ে অমরনাথ যাত্রীদের উপর হামলার প্রতিবাদেও দেখা গেল সেই স্লোগান-নট ইন মাই নেম।

বিজ্ঞাপনে বিকৃত বাংলা, এয়ারটেলের কানেকশন ছাড়লেন এই বাঙালি ]

প্রশ্নটা তুলে দিয়েছিলেন বিশিষ্ট লেখক চেতন ভগত। অমরনাথ যাত্রীদের উপর হামলার পরই তাঁর টুইট নেটদুনিয়ায় শোরগোল ফেলেছিল। তাঁর প্রশ্ন, জুনেইদ হত্যার পর যদি সংবাদমাধ্যমগুলি বলে যে মুসলিম বলেই মরতে হল কিশোরকে, তাহলে কেন বলা হবে না যে, হিন্দু বলেই মরতে হল অমরনাথ যাত্রীদের? তাঁর টুইটের যত সমালোচনাই হোক না কেন, গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রসঙ্গই তিনি উত্থাপন করেছিলেন। কেননা এ প্রসঙ্গ উঠেছিল ক’দিন আগেও। যখন জুনেইদ হত্যার পর গণপিটুনির প্রতিবাদে শুরু হয় ‘নট ইন মাই নেম’ ক্যাম্পেন, তখনই অনেকে জানতে চেয়েছিলেন, জঙ্গি হানার পর এ প্রতিবাদ হবে তো? অর্থাৎ সন্ত্রাস তা যেরকমেরই হোক না কেন, এই স্লোগান কি নিরপেক্ষ ভাবে ব্যবহৃত হবে? প্রশ্নটি অমূলক ছিল না। কেননা বহুবারই নাগরিক সমাজের আন্দোলন শেষমেশ রাজনীতির ফাঁদে পা দিয়ে দিয়েছে। বাকিটা নীল জলে শেয়ালের পড়ে যাওয়ার গল্প। এই সিঁদুরে মেঘ ডেকে ভয় পেয়েছিলেন অনেকে। কেউ আবার শৌখিন বিপ্লব বলে কটাক্ষ করেছিলেন। তবে ‘নট ইন মাই নেম’ স্লোগানধারীর অবশ্য অন্তত একবার প্রমাণ করলেন যে তা কোনও নির্দিষ্ট পক্ষের জন্য নয়। স্লোগানে এখনও পক্ষপাতিত্বের জং ধরেনি। অমরনাথ যাত্রীদের উপর হামলার প্রতিবাদেও হিন্দু-মুসলিম একজোট হয়ে যন্তর-মন্তরে প্রতিবাদে শামিল হলেন বহু মানুষ। তাঁদের হাতে ছিল ধিক্কার প্ল্যাকার্ড। সেখানেও লেখা-নট ইন মাই নেম। কেন এই হানাহানি তার জবাব নেই। কেন সন্ত্রাসের থাবা বারবার মনুষ্যত্বকে গ্রাস করে তার উত্তর মেলে না। তবে বিভাজন নির্বিশেষে বহু মানুষ যে নিরপেক্ষভাবে প্রতিবাদ করতে পারে, তারই যেন আরও একবার দেখা মিলল।

জঙ্গি মোকাবিলায় পাঠানো উচিত গো-রক্ষকদের, বিজেপিকে খোঁচা শিবসেনার ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে