৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘ড্রাগের থেকেও ক্ষতিকর মোমো’, জম্মুতে প্রতিবাদ মিছিল বিজেপির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 29, 2017 2:28 pm|    Updated: June 29, 2017 2:28 pm

Now BJP wants ban on Momo in Jammu

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  পশুহাট বা পশুবাজারে মাংস খাওয়ার জন্য কিংবা ধর্মীয় কারণে বলি দেওয়ার জন্য গবাদি পশু বিক্রি করা যাবে না। নির্দেশিকা জারি করেছে কেন্দ্রের মোদি সরকার। যা নিয়ে দেশ জুড়ে বিতর্ক কিছু কম হয়নি। মানুষের খাদ্যাভ্যাসে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগে সরব হয়েছে বিরোধীরা। আর এবার মোমোর মতো জনপ্রিয় ফাস্টফুড বিক্রি বন্ধের দাবিও উঠল। জম্মুতে মোমো বিক্রির প্রতিবাদে মিছিল করলেন সে রাজ্যের বিধান পরিষদের বিজেপি সদস্য রাজেশ আরোরা।

[অত্যাধুনিক যোগাযোগ উপগ্রহ মহাকাশে উৎক্ষেপণ ইসরোর]

কর্মব্যস্ত জীবনে এখন রান্নার করারও ফুরসৎ নেই মানুষের। তাই চটজলদি পেট ভরাতে ভরসা ফাস্টফুড। আর সেই তালিকায় সবার আগে যে খাবারের নামটি থাকে, তা হল মোমো। কিন্তু মোদি জমানায় সেই মোমো কী আর খাওয়া যাবে না? এখন সেই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে অনেকের মনে। বৃহস্পতিবার জম্মুতে মোমো বিক্রির প্রতিবাদে মিছিল করেছেন বিজেপি কর্মীরা। মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন জম্মু ও কাশ্মীরের বিধানসভা পরিষদের সদস্য ও বিজেপি নেতা রাজেশ আরোরা। তিনি বলেন, মোমোতে আজিনামটোর মতো ক্ষতিকারক উপকরণ ব্যবহার করা হয়। এটি স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর। নিয়মিত আজিনামটো শরীরে ঢুকলে ক্যানসার-সহ নানা ধরনের মারণ রোগ হতে পারে। বিজেপি নেতা রাজেশ আরোরার দাবি, এখন যুবক-যুবতীরা ড্রাগের মতোই মোমোর প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। এটা বন্ধ হওয়া দরকার।

 

বস্তুত, কাশ্মীরের মোমোর বিক্রি বন্ধ করতে দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন চালাচ্ছেন বিজেপি নেতা রাজেশ আরোরা। এর আগে তিনি বলেছিলেন, মদ ও ড্রাগের থেকেও বেশি ক্ষতিকর মোমো। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই জম্মু ও কাশ্মীরের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলি ভগতের সঙ্গেও কথা বলেছেন এই বিজেপি নেতা।

[গাড়ি আটকানোয় ট্রাফিক পুলিশকে চড়-ঘুসি ব্যবসায়ীর, ভিডিও ভাইরাল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে